নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ নভেম্বর ২০১৪, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২১, ২৪ মহররম ১৪৩৬
এইচ টি ইমামকে অপসারণের দাবি
মন্ত্রীদের সতর্ক হয়ে কথা বলার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর
সফিকুল ইসলাম
বিতর্কিত মন্তব্যের কারণে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমামকে অপসারণের দাবি জানিয়েছেন মন্ত্রিসভার কয়েকজন সদস্য। তবে মন্ত্রীদের আপত্তি এবং প্রস্তাবের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি কিছু বলেননি। এইচ টি ইমামের সামপ্রতিক বিতর্কিত বক্তব্যের বিষয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার ৩৫তম বৈঠক শেষে একজন মন্ত্রী ও একজন প্রতিমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

ছাত্রলীগের সভায় গত সংসদ নির্বাচন নিয়ে এইচটি ইমামের বক্তব্য প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, এখানে উনার কী ক্রেডিট আছে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে পুলিশ কাজ করেছে। শুধুই কী ওখানে পুলিশ ছিল? জনগণ ইলেকশন করেছে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী দুঃখ করে বলেন, আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি ভালো কাজ করার জন্য। যখন একটি ভালো কাজ নিয়ে আগাই আপনারা সে সম্পর্কে বলবেন।

সেটা না করে নতুন কিছু বলে বিতর্ক সৃষ্টি করা ঠিক নয়। যার যার দায়িত্ব নিয়ে কথা বলতে হবে।

গত ১২ নভেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত ছাত্রলীগের এক সভায় সরকারি চাকরিতে ছাত্রলীগকে বিশেষ সুযোগ দেয়া ও ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বিষয়ে বির্তকিত মন্তব্য করেছিলেন এইচ টি ইমাম। এর পরিপ্রেক্ষিতে মিডিয়াতে সমালোচনার ঝড় উঠে।

এইচ টি ইমাম গত রোববার বিবিসি বাংলাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার কথা হওয়ার দাবি করেন। এই বিষয়টিও সত্য নয় বলে মন্ত্রী সভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী স জানিয়েছেন। নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক বৈঠকে উপস্থিত একজন মন্ত্রী জানান, বৈঠকে সিনিয়র মন্ত্রীদের কয়েকজন ছাত্রলীগের সদস্যের চাকরি ও ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বিষয়ে এইচ টি ইমামের দেয়া সামপ্রতিক বক্তব্যের প্রসঙ্গ তোলেন মন্ত্রিসভায়। এ সময় বিবিসি (ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং করপোরেশন) বাংলায় দেয়া সাক্ষাৎকারের প্রসঙ্গও আসে। মন্ত্রীর ভাষ্য অনুযায়ী, বিষয়টি শোনার পর প্রধানমন্ত্রী বলেন, উনার সঙ্গে আমার কোনো কথা হয়নি। উনি হয়তো টেলিফোন করেছিলেন। যে কোনো কারণেই হোক কথা বলা হয়নি।

বৈঠকে এইচ টি ইমাম সংক্রান্ত আলোচনায় ওবায়দুল কাদের, তোফায়েল আহমেদসহ আরো বেশ কয়েকজন সিনিয়র মন্ত্রীরা অংশ নেন। তাদের মধ্য থেকে এইচ টি ইমামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও উঠে আসে। তবে এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী সাড়া দেননি। বৈঠক সূত্র জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কাকে কোন জায়গায় রাখতে হবে এটা আমি জানি। সেভাবেই কাজ করছি। দেশও ভাল চলছে। কিন্তু, হঠাৎ হঠাৎ বিতর্কিত কথা বলে সরকারকে বিপাকে ফেলছেন কেউ কেউ। একইসঙ্গে বিরোধী দলের মুখে ইস্যু তুলে দেয়া প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সমালোচকরা বসে থাকে সমালোচনা করার জন্য। তাদের হাতে অস্ত্র তুলে দেয়ার কী দরকার আছে।

সূত্রমতে, গত নির্বাচনে এইচ টি ইমাম শুধু পুলিশের ভূমিকার কথা উল্লেখ করেছেন। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভার বৈঠকে বলেন, নির্বাচনে সবচেয়ে বড় অবদান রেখেছে সারাদেশের মানুষ। তারা বিরোধীদের সঙ্গে যোগ না দিয়ে আমাদের সঙ্গে থেকেছেন। এর বাইরে সেনাবাহিনী, বিজিবি, আনসার, স্কুল শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্ট সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। তাই এ সব বিষয়ে খ-িত বক্তব্য রাখাও ঠিক নয় বলেও মন্তব্য করেছেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কেনিবেট বৈঠকে বাংলাদেশ হাওর ও জলাভূমি উন্নয়ন বোর্ড আইন-২০১৪ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররফ হোসেন ভুইয়া জানান, মন্ত্রিসভা বৈঠকে সোমবার 'ড্রাফট মটর ভেহিক্যালস এগ্রিমেন্ট ফর দ্য রেগুলেশন অব প্যাসেঞ্জার অ্যান্ড কার্গো ভেহিকুলার ট্রাফিক অ্যামগস্ট সার্ক মেম্বার স্টেটস' শীর্ষক চুক্তির খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এ চুক্তির মাধ্যমে সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে অবাধে গাড়ি চলাচলের ক্ষেত্রে দুয়ার খুলবে। খসড়া চুক্তিতে চলাচলের ক্ষেত্রে লাইসেন্স ও কোনো কোনো ক্ষেত্রে বীমার কথাও বলা হয়েছে। তিনি জানান, আগামী ২৬ ও ২৭ নভেম্বর কাঠমান্ডুতে সার্ক সামিটে এ চুক্তি স্বাক্ষর করার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে তার আগে সার্কভুক্ত দেশগুলোর মন্ত্রীপর্যায়ের মিটিংয়ে এটি চূড়ান্ত হতে হবে।

Fatal error: Uncaught exception 'PDOException' with message 'SQLSTATE[HY000]: General error: 26 file is encrypted or is not a database' in /home/janata/public_html/lib/newsHitCount.php:7 Stack trace: #0 /home/janata/public_html/lib/newsHitCount.php(7): PDO->query('Update newsHitC...') #1 /home/janata/public_html/lib/index.php(135): require('/home/janata/pu...') #2 /home/janata/public_html/web/details.php(10): lib->newsHitCount() #3 /home/janata/public_html/web/index.php(28): include('/home/janata/pu...') #4 /home/janata/public_html/index.php(15): include('/home/janata/pu...') #5 {main} thrown in /home/janata/public_html/lib/newsHitCount.php on line 7