নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ নভেম্বর ২০১৪, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২১, ২৪ মহররম ১৪৩৬
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতাল
ক্লিনিক ব্যবসার সুবিধার্থে অকেজো ফেলে রাখা হয়েছে ল্যাপারোস্কোপিক মেশিন
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের দামি ল্যাপারোস্কোপিক মেশিনটি দীর্ঘদিন ধরে অব্যবহৃত পড়ে আছে। এতে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ। অভিযোগ আছে, প্রাইভেট ক্লিনিকে ব্যবসার সুবিধার্থে ইচ্ছাকৃতভাবে ফেলে রাখা হয়েছে মেশিনটি। অথচ পিত্তথলির পাথর ও জরায়ুর টিউমারসহ আরো নানা রোগের অস্ত্রপচারের জন্য প্রায় ৩বছর আগে আনা হয় এই মেশিনটি।

এরপর ২ থেকে ৩ মাস ব্যবহারের পর তা ফেলে রাখা হয়েছে। ফলে সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে রোগীরা। তবে, সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডাঃ শফিকুল ইসলাম মেশিনটি ইচ্ছাকৃত ফেলে রাখার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, জ্যেষ্ঠ অস্ত্রোপচার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে (সিনিয়র সার্জারি কনসালটেন্ট) সহায়তা করার জন্য চিকিৎসক না থাকায় এ সংক্রান্ত রোগীদের অস্ত্রোপচার করা যাচ্ছে না। জানা গেছে, দেড় বছর আগেই জ্যেষ্ঠ অস্ত্রোপচার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে সহায়তাকারী চিকিৎসক ডাঃ নাদিম সরকার বদলি হয়ে অন্যত্র চলে যাওয়ায় অস্ত্রোপচার বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু ৩ মাস আগে তিনি আবারো সদর হাসপাতালে যোগদান করেছেন। কিন্তু তাঁকে ল্যাপারোস্কোপিক অস্ত্রোপচারে সহায়তা করার জন্য না বসিয়ে লাগিয়ে জরুরী বিভাগে বসানো লাগানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে আরএমও'র দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি জানান, জরুরী বিভাগে চিকিৎসকের সংকট থাকায় ডাঃ নাদিমকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সদর হাসপাতালের জেষ্ঠ্য অস্ত্রোপচার বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ মনিরুজ্জামান সরকার এ প্রসঙ্গে বলেন, ল্যাপারোস্কোপিক অপারেশন করতে সব সময় আগ্রহী। কিন্তু আমাকে সহায়তা করার জন্য উপযুক্ত চিকিৎসক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দিতে পারেনি বলে এতদিন এ সংক্রান্ত অপারেশন হয়নি। এটা একটা দলীয় কাজ। একা এ কাজ করা যায় না। এখন যে ছোট-খাটো অপারেশন হচ্ছে সেখানেও ওয়ার্ডবয়দের সহায়তা নিতে হয়। এখানে অভিজ্ঞ সেবিকাদেরও সংকট রয়েছে। এর আগে (দেড় বছর আগে) সহায়তাকারী চিকিৎসক থাকা অবস্থায় ৪টি করে ল্যাপারোস্কোপিক অপারেশন করা হত। দরিদ্র রোগীরা উপকৃত হতেন। বাইরে (প্রাইভেট ক্লিনিকে) এ অপারেশন করতে কমপক্ষে ৩০হাজার টাকা খরচ হয়। অথচ সাধারণ দরিদ্র মানুষের সেবায় এটা কাজে লাগানো যাচ্ছে না।


Fatal error: Uncaught exception 'PDOException' with message 'SQLSTATE[HY000]: General error: 26 file is encrypted or is not a database' in /home/janata/public_html/lib/newsHitCount.php:7 Stack trace: #0 /home/janata/public_html/lib/newsHitCount.php(7): PDO->query('Update newsHitC...') #1 /home/janata/public_html/lib/index.php(135): require('/home/janata/pu...') #2 /home/janata/public_html/web/details.php(10): lib->newsHitCount() #3 /home/janata/public_html/web/index.php(28): include('/home/janata/pu...') #4 /home/janata/public_html/index.php(15): include('/home/janata/pu...') #5 {main} thrown in /home/janata/public_html/lib/newsHitCount.php on line 7