নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, রোববার ১৭ জুন ২০১৭, ৩ আষাঢ় ১৪২৪, ২১ রমজান ১৪৩৮
রাঙামটিতে মানবিক বিপর্যয়
১৩ জুন পাহাড়ধসের পর রাঙামাটির সঙ্গে সারা দেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। ভেঙে পড়েছে সরবরাহব্যবস্থা। বিদ্যুৎ নেই, পানি নেই, নেই জ্বালানি তেলের সরবরাহ। চাহিদামতো মিলছে না ভোগ্যপণ্য। দেখা দিয়েছে খাদ্যসংকট। চাপের মুখে দরিদ্র মানুষ। অবস্থাপন্নরাও সংকটে। পুরো রাঙামাটিতে এখন পানি, খাবার, মোমবাতি, দিয়াশলাই ও কেরোসিনের জন্য হাহাকার। বড় ধরনের মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে রাঙামাটিতে।

এবারের পাহাড়ধসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রাঙামাটি। পাহাড়ধসের ঘটনায় এ পর্যন্ত পাঁচ জেলায় ১৫৪ জনের প্রাণ গেছে। শুধু রাঙামাটি জেলায়ই মৃতের সংখ্যা ১০৮। ছয় লাখ ২০ হাজার জনসংখ্যার শহর বিদ্যুৎহীন ছিল তিন দিন। বিদ্যুৎ এলেও পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক হয়নি। ফলে পানি সরবরাহ ব্যবস্থাও চালু করা সম্ভব হয়নি। দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ খাবার পানির সঙ্কট। জ্বালানিসংকটের কারণে শহরে যানবাহন চলাচলও সীমিত। বাইরে থেকে কোনো যানবাহন রাঙামাটি শহরে আসতে পারছে না। কবে নাগাদ রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক চালু করা যাবে, তা বলা কঠিন। রাঙামাটি সদরের ১৩টি আশ্রয়কেন্দ্রে এরইমধ্যে অনেক দুর্গত পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। পাহাড়ধসে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাঘাট ও অবকাঠামো সংস্কারসহ ১৯টি বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর নির্দেশনার শীর্ষে রয়েছে রাঙামাটি। চট্টগ্রাম ও অন্যান্য এলাকার সঙ্গে রাঙামাটির যোগাযোগ পুনঃস্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে অবিলম্বে রাঙামাটির মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। প্রথমেই সরবরাহব্যবস্থা নতুন করে গড়ে তুলতে হবে। চট্টগ্রামসহ পার্শ্ববর্তী সব জেলা ও উপজেলার সঙ্গে রাঙামাটির যোগাযোগব্যবস্থা চালু করে প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য সরবরাহ করতে না পারলে এ দুর্যোগ অবস্থা থেকে মুক্তি মিলবে না। আশ্রয়কেন্দ্রে যারা আশ্রয় নিয়েছে, তাদের জন্যও বিশুদ্ধ পানি ও খাবারের ব্যবস্থা করতে হবে। ভূমিধসে আহতদের চিকিৎসায় টাস্কফোর্স গঠন করে ঘরে ঘরে গিয়ে চিকিৎসা দিতে হবে।

সর্বাত্মক ব্যবস্থা নিতে না পারলে রাঙামাটিতে বিপর্যয় ঠেকানো যাবে না। আশার কথা, সেনাবাহিনীসহ স্থানীয় প্রশাসন এরইমধ্যে উদ্ধারকাজ ও ত্রাণ তৎপরতা শুরু করেছে। হাসপাতালগুলোতে আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সমন্বিত চেষ্টায় রাঙামাটিতে আবার প্রাণপ্রবাহ ফিরবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৫
ফজর৪:৪৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৭
মাগরিব৫:২৮
এশা৬:৪১
সূর্যোদয় - ৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৬৫১৪.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.