নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২ জুন ২০১৬, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৩, ২৫ শাবান ১৪৩৭
ফরিদপুর যৌনপল্লীতে প্রকাশ্যে মায়ের সামনে থেকে ধরে নিয়ে শিশু হত্যা
ফরিদপুর থেকে মো. হেমায়েত হোসেন হিমু
ফরিদপুরের শহরতলীস্থ সিএন্ডবি ঘাট পতিতা পল্লীর যৌনকর্মী মনি খানমের ২ বছরের শিশু কন্যা মদিনাকে তার মায়ের সামনে থেকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মনি খানম বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত ৬ আসামীর মধ্যে দু্'ই জনকে আটক করেছে পুলিশ। অন্যারা পলাতক থাকলেও যৌনকর্মী এলাকায় চরম উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। মামলার বাদীনি যৌনকর্মী মনি খানমসহ উপস্থিত অসংখ্য যৌনকর্মী গতকাল এ প্রতিনিধিকে জানায় গত ১৮ মে মাদক দ্রব্য বিক্রয়রত অবস্থায় পতিতা সরদারনি সালেহা বেগমের দু'ই পুত্র তুফান ও আকাশ শহরের স্টেশন বাজার এলাকায় পুলিশের হাতে আটক হয়। আর এ ঘটনায় সালেহা বেগম যৌনকর্মী মনি খানমকে সন্দেহ করতে থাকে। ইতিমধ্যে কয়েক দফা ঝগড়া-ঝাটিও হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় সালেহা বেগমের বর্তমান স্বামী কমলাপুর মহল্লার পার্থ প্রতীম ভদ্র ওরফে গৌতম কয়েকদিন আগে যৌন পল্লীতে গিয়ে সালেহা বেগমসহ তার ছেলেদের প্রকাশ্যে বলে যায় দ্রুত এদের দুনিয়া থেকে সরিয়ে দিতে হবে। গৌতম এও বলে যে, তার কথার বাইরে কোন পুলিশের চলার উপায় নেই। উদাহরণ দিয়ে সে বলে যে, দেখনা, তুফান ও আকাশকে স্টেশন বাজার হতে পুলিশ ধরেও আটক রাখতে পারেনি। গৌতমের নির্দেশ পেয়ে সালেহার নেতৃত্বে গত ২৫ মে বুধবার সকাল অনুমান সাড়ে ১১ টার সময় প্রকাশ্য দিবালোকে পতিতাদের সামনে বন্যা, দোলনা, বিউটি, তুফান ও আকাশ শিশু মদিনাকে তার মায়ের সামনে থেকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে গিয়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই হত্যা করে তার মৃত দেহ ফেরৎ দিয়েছে। আবার মায়ের অচেতন অবস্থায় সেই পার্থ প্রতীম ভদ্র ওরফে গৌতমের উপস্থিতিতে এবং প্রকাশ্য নির্দেশে ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফন সম্পন্ন করেছে। মদিনার মায়ের দায়েরকৃত মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক বেলাল হোসেন বিজ্ঞা আদালতে ময়না তদন্তের আবেদন জানালে আদালত তা গ্রহণ পূর্বক একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর উপস্থিতিতে কবর সনাক্তকরণ পূর্বক লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করার আদেশ প্রদান করেছেন। পতিতা পল্লীর যৌনকর্মীদের সাথে কথা বলে আরো জানা গেছে, ইতিপূর্বে চাদনী নামের এক সুকড়ী ও বিউটি নামের এক যৌনকর্মীর সদ্য ভূমিষ্ঠ হওয়া শিশু পুত্রকেও এই সালেহা বেগম হত্যা করেছে এবং গৌতমই কোন মামলা করতে দেয়নি বলে যৌনকর্মীরা প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২২
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৯০৩৪.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.