নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ১১ মে ২০১৬, ২৮ বৈশাখ ১৪২৩, ৩ শাবান ১৪৩৭
বাজারে উঠতে শুরু করেছে লিচু দিনাজপুরে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা
দিনাজপুর থেকে শামীম রেজা
দিনাজপুরে লিচু বাগানে গাছে গাছে লিচুর সমারোহ ও পাকা লিচুর সুগন্ধে চারদিকে ভরে উঠেছে। মৌমাছিরা লিচুর ঘ্রান নিতে বাগানে ভো ভো শব্দ করে লিচুর এ ডাল থেকে ও ডালে উড়াল দিচ্ছে। এ অঞ্চলের সুস্বাদু বেদেনা লিচু জৈষ্ঠ মাসের প্রথমেই বাজারে উঠবে। বর্তমানে দেশী প্রজাতির মাদ্রাজী লিচু বাজারে উঠছে। দেশি প্রজাতির বোম্বে ও অন্যান্য লিচু বাজারে উঠার অপেক্ষায় রয়েছে।

সরেজমিন লিচু বাগানগুলোতে গিয়ে বাগানীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এবারে অতি মাত্রায় তাপদাহ ও জলবায়ু প্রভাবের কারণে বৃষ্টির অভাব এবং তীব্র রোদের কারণে লিচুর বাগানের গুটি ঝরে যাওয়ার পরেও যে সব লিচু এখনও গাছে রয়েছে তাতে লিচুর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলন ভালো পাওয়ার আশায় বাগান মালিক ও বাগান ক্রয় করে পরিচর্যায় নিয়োজিত ব্যবসায়ীরা পরিচর্যায় ব্যস্ত রয়েছে। লিচুর ফুল ও মুকুল আসার শুরু থেকেই গাছের গড়ায় ও গাছের ডাল ও আগায় পানি দেয়া, গাছের খাবার হিসেবে জৈব ও রাসায়নিক সার এবং ফল গাছের সামঞ্জস্য স্প্রে নিয়মিত পরিচর্যায় প্রয়োগ করা হয়েছে। মৌসুমের শেষে এ মধু মাসে দেশি জাতের মাদ্রাজি লিচু কেবল মাত্র বাজারে উঠতে শুরু করেছে। মাদ্রাজি ও দিনাজপুরের বিখ্যাত বেদেনা লিচু জৈষ্ঠ মাসের প্রথম মাসে বাজারে আসবে। বেদেনা লিচু ক্রয়ের জন্য গ্রাহকেরা অধিক আগ্রহে অপেক্ষা করছে। জনশ্রুতি রয়েছে বেদেনা লিচুর ব্যাপক চাহিদা থাকায় বাজারে উঠার পূর্বেই বাগান থেকে ক্রেতারা নিয়ে যায়।

দিনাজপুর জেলার সদর, বিরল, চিরিরবন্দর, বোচাগঞ্জ, বীরগঞ্জ, খানসামা, পার্বতীপুর, ফুলবাড়ী ও বিরামপুর উপজেলাসহ ১৩টি উপজেলাতেই কম বেশি লিচুর বাগান রয়েছে। এসব বাগানে মাদ্রাজী, চায়না, বোম্বাই, কাঠালী আর দেশি জাতের লিচুতে ছেয়ে গেছে। বিগত বছরগুলোতে লিচু বাগানের মালিকেরা লিচু চাষে ব্যাপক লাভবান হওয়ায় লিচুর বাগান করার চাহিদাও বেড়ে গেছে। গত বছর প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও রাজনৈতিক কারণে হরতাল-অবরোধ থাকায় যানবাহন না চলায় দিনাজপুরের লিচু অনত্র্য প্রেরণ করতে না পারায় লিচু বাগানের মালিক ও ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গত বছরের ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার জন্য লিচু বাগানের মালিকেরা এবারে লিচু পরিচর্যায় ব্যস্ত রয়েছে। তবে অতি মাত্রায় ক্ষরা, তাপদাহ ও বৃষ্টি না হওয়ায় লিচু ফলের কিছুটা ক্ষতি হয়েছে।

দিনাজপুর সদর উপজেলার কসবা এলাকার লিচু বাগানের মালিক আনিসুর রহমান জানান, হরতাল, অবরোধ না থাকলে ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে এবং পরিবহন সমস্যা না হলে গতবারের লোকসান পুষিয়ে নেয়া যাবে। এখন পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে রয়েছে। বাইরের ঢাকা, চিটাগাঁং, সিলেটসহ বিভিন্ন জেলার লিচু ব্যবসায়ীরা অনেকে আগাম বাগান কিনে রেখেছেন। তবে এবারে হরতাল-অবরোধ ও পরিবহন সমস্যা কম হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় লিচু ব্যবসায়ীরা লাভের আশা করছেন। অন্য দিকে দিনাজপুর চুনিয়াপাড়া দেবীপুর নামকস্থানে বাগান মালিক এ্যাডঃ শামীম আলী সরকার জানান, গতবারের তুলনায় এবারে লিচুর ফলন আমার বাগানে অনেকটাই কম। বৃষ্টি কম হওয়া ও রোদের কারণে মুকুল ঝরে যাওয়ায় ফলন কম হওয়ার সম্ভাবনা। নিরাপত্তা বিষয়ে বর্তমানে কোন সমস্যা নেই। তবে মাঝে মধ্যে দুর্বৃত্তরা লিচুর বাগান লুট করে নেয়। তবে এবারে আমাদের সতর্ক দৃষ্টি রয়েছে। লিচুর বাগানের পরিচর্যাকারী আবু বকর হিরা ও রহমত আলীর সাথে কথা বললে তারা বলেন, আমরা বাগানের মালিকদের লিচু পরিচর্যা করে প্রতিদিন ৩শ টাকার মত মজুরী পাই। তবে এবারে লিচুর ফলন গত বারের তুলনায় এখন পর্যন্ত ভালো।

এদিকে লিচু সংরক্ষণ এর কোন ব্যবস্থা না থাকায় প্রতি বছরই ব্যাপকহারে লিচু নষ্ট হয়। এব্যাপারে দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এর সভাপতি মোসাদ্দেক হুসেন জানান, দিনাজপুরের লিচু, আম এবং শাক-সবজি সংরক্ষণের জন্য কোন বিশেষায়িত হিমাগার নেই। চেম্বার থেকে উদ্যোক্তাদের বিশেষায়িত হিমাগার তৈরীর জন্য আমরা অনুপ্রানিত করে আসছি।

দিনাজপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক গোলাম মোস্তফা জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার লিচু বাম্পার ফলন হয়েছে। দিনাজপুরের ১৩টি উপজেলায় এবার ৪ হাজার ১শ হেক্টর জমিতে লিচুর আবাদ করা হয়েছে। উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২৬ হাজার মেট্রিক টন। অতি তাপদাহ ও অনাবৃষ্টির কারণে লিচু ফল গাছে ফেটে যাচ্ছে এ বিষয়ে তিনি বলেন, এধরনের কিছু সমস্যা থাকে। তবে খুব বেশি একটা ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। লিচু বিদেশে পাঠানোর ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ২/৩ দিনের মধ্যে লিচুর কালার বদলে যায় এবং সংরক্ষণের কোন ব্যবস্থা না থাকায় বিদেশে পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২২
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৫১৭২.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.