নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ১১ মে ২০১৬, ২৮ বৈশাখ ১৪২৩, ৩ শাবান ১৪৩৭
সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকার ৭ প্রকল্প অনুমোদন একনেকের
জনতা ডেস্ক
৫ হাজার ৫২৭ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৭ প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক)। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্ব পেয়েছে 'প্রো-পুওর মস্নাম ইন্টিগ্রেশন প্রোজেক্ট'। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক বৈঠকে এসব প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের

এ তথ্য জানান। তিনি জানান, প্রো-পুওর সস্নাম ইন্টিগ্রেশন প্রোজেক্টে বস্তিবাসীদের জন্য ঢাকার বাইরে বাসস্থান বানাতে ব্যয় করা হবে ৩০৪ কোটি ২৫ লাখ টাকা। জানুয়ারি ২০১৬ থেকে ২০২০ সালের মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হবে।

মুস্তফা কামাল বলেন, একনেক বৈঠকে ৫ হাজার ৭২৭ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে মোট ৭ প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে সরকারি অর্থায়ন হাজার ২ হাজার ৭৬৯ কোটি ৩৫ লাখ এবং প্রকল্প সাহায্য ২ হাজার ৯৪৮ কোটি ৯৯ লাখ ও নিজস্ব তহবিল ৯ কোটি ৯ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে। বস্তিবাসীদের জন্য প্রকল্পটি ছাড়াও অনুমোদিত হয় 'সিলেট বিভাগ পল্লী বিদ্যুাতায়ন কার্যক্রম সমপ্রসারণ এবং বিআরইবি'র সদর দপ্তরে ভৌত সুবিধা দিয়ে উন্নয়ন' প্রকল্প। এর ব্যয় হবে ১ হাজার ৪১৭ কোটি ১০ লাখ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মেয়াদ ধরা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৬ হতে ডিসেম্বর ২০১৮ সালের মধ্যে। 'মংলা বন্দর হতে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত পশুর চ্যানেল ক্যাপিটাল ড্রেজিং' প্রকল্প। এ প্রকল্পে ব্যয় হবে ১৬৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। জানুয়ারি ২০১৬ থেকে ডিসেম্বর ২০১৭ মেয়াদে বাস্তবায়ন করবে। '১৭টি আঞ্চলিক পার্সপোট অফিস নির্মাণ' প্রকল্প। এতে ব্যয় হবে ১০৭ কোটি ৬১ লাখ টাকা। এর মেয়াদকাল জানুয়ারি ২০১৬ থেকে ডিসেম্বর ২০১৯। 'মেঘনা নদীর ভাঙ্গন হতে ভোলা জেলার চরফ্যাশন পৌর শহর সংরক্ষণ' প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় করা হবে ২০৯ কোটি ৪ লাখ টাকা। জুলাই ২০১৬ থেকে জুন ২০২১ সালের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। 'বাংলাদেশ স্কাউটিং সমপ্রসারণ ও স্কাউট শতাব্দি ভবন নির্মাণ' প্রকল্প। এ প্রকল্পে ব্যয় করা হবে ১২২ কোটি ১০ লাখ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মেয়াদ ধরা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৬ হতে ডিসেম্বর ২০১৮ সালের মধ্যে এবং 'সেকেন্ডারি এডুকেশন কোয়ালিটি এন্ড অ্যাকসেস এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট (সেকায়েপ)' প্রকল্পটির ৩য় সংশোধনী অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পটির ব্যয় বৃদ্ধি করে ৩ হাজার ৪০০ কোটি ৮০ লাখ টাকা করা হয়েছে। প্রকল্পটির মেয়াদ এক বছর বৃদ্ধি করে জুন ২০১৪ করা হয়েছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৫
ফজর৪:৪৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৭
মাগরিব৫:২৮
এশা৬:৪১
সূর্যোদয় - ৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৫৭৭৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.