নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১, ২৯ আশ্বিন ১৪২৮, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩
সেপ্টেম্বরে পোশাক রফতানি বেড়েছে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার
অর্থনৈতিক রিপোর্টার
করোনাভাইরাসের ধাক্কা সামলে দেশের তৈরি পোশাক খাতে আগের চেয়ে ক্রয়াদেশ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসের তুলনায় চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের বিশ্ববাজারে রফতানি শতকরা ৪১ দশমিক ৬৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। যার পরিমাণ ১০০ কোটি মার্কিন ডলার। দেশীয় টাকায় যার মূল্য ৮ হাজার ৪০০ কোটি টাকা। সম্প্রতি রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, এ বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বিশ্ববাজারে দেশীয় তৈরি পোশাক রফতানির পরিমাণ ৩ হাজার ৪১৮ কোটি ৮৪ লাখ ইউএস ডলার যা ২০২০ সালের এ সময়ে ছিল ২ হাজার ৪১৩ কোটি ৪২ লাখ ইউএস ডলার। শুধু গত বছরের সেপ্টেম্বরের চেয়ে বেশি নয়, চলতি বছরের প্রথম ৯ মাসের তুলনায় তৈরি পোশাক রফতানিতে সর্বোচ্চ আয় হয়েছে। এবছরের গত জুন, জুলাই ও আগস্টে যথাক্রমে পোশাক রফতানির পরিমাণ ছিল ২ হাজার ৮৯৪ কোটি ৮৮ লাখ ইউএস ডলার, ২ হাজার ৮৮৭ কোটি ২২ লাখ ইউএস ডলার এবং ২ হাজার ৭৫৩ কোটি ৫৬ লাখ ইউএস ডলার। ইপিবির সূত্র মতে, সেপ্টেম্বর মাসে ওভেন ও নিটওয়্যার খাতের পোশাক রফতানি হয়েছে ৩ হাজার ৪১৮ কোটি ৮৪ লাখ ইউএস ডলার। এর মধ্যে ওভেন খাতের পোশাক রফতানি থেকে আয় হয়েছে ১ হাজার ৫১৩ কোটি ৫৫ লাখ ইউএস ডলার। আর নিটওয়্যার খাতের রফতানি আয় হয়েছে ১ হাজার ৯০৫ কোটি ২৫ লাখ ইউএস ডলার।

২০২০ সালে সেপ্টেম্বর মাসে ওভেন খাত থেকে রফতানি আয় হয়েছিল ১ হাজার ৬৪ কোটি ৫৪ লাখ ইউএস ডলার। আর নিটওয়্যার খাত থেকে আয়ের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৩৪৮ কোটি ৮৮ লাখ ইউএস ডলার। এ সম্পর্কে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ (বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি) সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, গত দেড় বছর করোনার মহামারীর কারণে আমরা অনেকটাই অবরুদ্ধ ছিলাম। করোনার ধাক্কা আমরা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছি। তিনি বলেন, আমাদের কারখানাগুলোতে প্রচুর পরিমাণ অর্ডার আসছে এবং পোশাকের দামও বাড়ছে। করোনার মধ্যে কারখানা খোলা রেখে আমরা কেবল ব্যবসা ধরে রেখেছি। এখন তার ফল পাচ্ছি। পশ্চিমা ক্রেতাদের সঙ্গে তাদের বৈঠক হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি আরো বলেন, পোশাকের আরো বেশি দাম পাওয়ার নিশ্চয়তা পাওয়া গেছে। এছাড়াও ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাজারে 'জিএসপি প্লাস' সুবিধা পাওয়ার পথও সুগম হয়েছে। ফলে আশা করছি, সামনের দিনগুলোতে রফতানি আয় আরো বৃদ্ধি পাবে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৫
ফজর৪:৪৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৭
মাগরিব৫:২৮
এশা৬:৪১
সূর্যোদয় - ৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫১৭৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.