নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৩০ ভাদ্র ১৪২৪, ২২ জিলহজ ১৪৩৮
ঈদযাত্রায় প্রাণ হারিয়েছেন ৩২২ জন : যাত্রী কল্যাণ সমিতি
স্টাফ রিপোর্টার
এবারের কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে ঘরমুখে ও ফিরতি যাত্রায় সারা দেশে দুর্ঘটনায় ৩২২ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে যাত্রীদের অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি। এর মধ্যে সড়কপথের ২১৪টি দুর্ঘটনায় ২৫৪ জন, নৌপথে ২৫ জন ও ট্রেনে কাঁটা পড়ে ৪৩ জন নিহত হয় বলে গতকাল বুধবার দুর্ঘটনার এক পরিসংখ্যান তুলে ধরে জানায় তারা। গতকাল বুধবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এবারের ঈদুল আজহায় দুর্ঘটনা নিয়ে যাত্রী কল্যাণ সমিতির তৈরি প্রতিবেদন তুলে ধরেন সংগঠনটির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, সমিতির দুর্ঘটনা মনিটরিং সেল গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের আলোকে ঈদের আগে-পরে ১৩ দিনের দুর্ঘটনার তথ্য নিয়ে এ পরিসংখ্যান তৈরি করেছে। প্রতিবেদনে ২৮ অগাস্ট থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দুর্ঘটনার তথ্য রয়েছে। সমিতির পরিসংখ্যান বলছে, ঈদ ও ফিরতি যাত্রায় ২১৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২৫৪ জন নিহত ও আরও ৬৯৬ জন আহত হয়। একই সময়ে নৌপথের ১৫টি দুর্ঘটনায় ২৫ জন নিহত ও ৬৩ জন আহত হয়। আর ট্রেনে কাঁটা পড়ে নিহত হয় ৪৩ জন। সড়ক, রেল ও নৌ-পথে সম্মিলিতভাবে ২৭২টি দুর্ঘটনায় ৩২২ জন নিহত ও ৭৫৯ জন আহত হয়েছে বলে জানান যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল। তিনি বলেন, এবারের ঈদযাত্রায় দুর্ভোগের শঙ্কা দেশের গণমাধ্যমগুলো প্রকাশ করেছে। অনেক আগেভাগে ঈদযাত্রা শুরু হওয়ায় ঘরমুখো যাত্রা ফেরতযাত্রার চেয়ে খানিকটা স্বস্তিদায়ক ছিল। তবে ফিরতি যাত্রায় ভোগান্তি ও সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানি বেড়েছে। এ পরিসংখ্যান তৈরিতে যাত্রী কল্যাণ সমিতির সড়ক দুর্ঘটনা মনিটরিং সেলের সদস্যরা ২২টি জাতীয় দৈনিক, ছয়টি আঞ্চলিক দৈনিক ও ১০টি অনলাইন দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের তথ্য নিয়ে করেছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী দুর্ঘটনার ধরন বিশ্লেষণে দেখা যায়, মোট সড়ক দুর্ঘটনার ৩৯ দশমিক ১ শতাংশ পথচারীকে চাপা দেওয়া, ১২ দশমিক ৬ শতাংশ গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে, ৩২ দশমিক ৬ শতাংশ মুখোমুখি সংঘর্ষে, ১ দশমিক ৪ শতাংশ চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে, ৩ দশমিক ২ শতাংশ গাড়ির ছাঁদ থেকে পড়ে এবং ১১ দশমিক ২ শতাংশ অন্যান্য কারণে ঘটেছে। যানবাহনের ৩৭ ভাগ বাস, ৩৫ ভাগ ট্রাক ও পিকআপ, ২৩ ভাগ নছিমন-করিমন, ভটভটি-ইজিবাইক, অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল, ৫ ভাগ অন্যান্য যানবাহন এসব দুর্ঘটনায় জড়িত ছিল বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে পিএসসির সাবেক চেয়ারম্যান ইকরাম আহমেদ, সাংবাদিক আবু সাঈদ খান, বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক ড. মাহবুব আলম তালুকদার এবং সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের যুগ্ম-সম্পাদক হানিফ খোকন উপস্থিত ছিলেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২৪
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫১
আসর৪:১২
মাগরিব৫:৫৬
এশা৭:০৯
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৭৫৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.