নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৩০ ভাদ্র ১৪২৪, ২২ জিলহজ ১৪৩৮
চট্টগ্রামে ট্রেনের দুই ইঞ্জিনে সংঘর্ষ
লোকো মাস্টারকে চাকরি থেকে অপসারণ
চট্টগ্রাম ব্যুরো
চট্টগ্রামে ট্রেনের দুইটি বগির সংঘর্ষের ঘটনায় চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়েছে লোকো মাস্টার মাসুদুর রহমানকে। গত ২৯ আগস্ট 'সি' নোটিশ জারির মাধ্যমে তাকে চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় চাকরি থেকে অপসারণের সুপারিশ করে তদন্ত কমিটি। সে অনুযায়ী গত ২ আগস্ট চাকরি থেকে কেন অপসারণ করা হবে না তা জানতে চেয়ে ১৪ দিনের মধ্যে দফতরকে অবহিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়। জানা গেছে, চলতি বছরের ৮ এপ্রিল ভোর পৌনে পাঁচটায় বিজয় এঙ্প্রেস ট্রেন চট্টগ্রাম স্টেশনে প্রবেশের সময় শান্টিং ইঞ্জিনের সঙ্গে সংঘর্ষে উভয় ইঞ্জিনের সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। তখন বিজয় ট্রেনের গতি কম থাকার কারণে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায়। রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ৮ এপ্রিল ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা বিজয় এঙ্প্রেস ট্রেনটি শনিবার ভোর ৪টা ৪০ মিনিটে চট্টগ্রাম স্টেশনের কাছাকাছি পৌঁছে। স্টেশনে প্রবেশের সংকেত পেয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হয়। এ সময় সিগন্যাল ওভারশ্যুট করে স্টেশন থেকে সামনের দিকে আসলে শান্টিং ইঞ্জিনের (ট্রেনের ইঞ্জিনিকে স্টেশন থেকে লোকোশেডে টেনে নেওয়ার কাজে ব্যবহৃত ইঞ্জিন) সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ভেঙে যায় শান্টিং ইঞ্জিনের বাফার। এ ঘটনায় উচ্চ ও বিভাগীয় পর্যায়ে দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। রেলওয়ে সূত্র জানায়, ওইদিন ভোরে শান্টিং ইঞ্জিন চালানোর দায়িত্বে ছিলেন লোকো মাস্টার মাসুদুর রহমান। কিন্তু কর্মস্থলে না গিয়ে বাসায় গভীর ঘুমে মগ্ন ছিলেন তিনি। অন্যদিকে তার সহকর্মী সহকারী লোকো মাস্টার ইঞ্জিন নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে সিগন্যাল ওভারশ্যুট করে। এতে চট্টগ্রাম স্টেশনে প্রবেশের সময় বিজয় এঙ্প্রেস ট্রেনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় তখনই মাসুদ ও সহকারী লোকো মাস্টার আবদুল করিম তালুকদারকে দায়িত্ব অবহেলার দায়ে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। পরে গঠিত দুটি তদন্ত কমিটি দায়িত্ব অবহেলার প্রমাণ পেয়ে মাসুদুর রহমানকে চাকরি থেকে অপসারণের সুপারিশ করে। সে অনুযায়ী গত ১৫ জুন নোটিশ ফরম 'এ' এবং ২ আগস্ট নোটিশ ফরম 'বি' পাঠানো হয়। ফরম 'বি'তে মাসুদুর রহমানের দেওয়া বক্তব্য বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী (লোকো) বিবেচনা করে চাকরি থেকে অপসারণের দ- আরোপ ফরম 'সি' নোটিশ জারি করেন। রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ঘটনার সময় মাসুদুর রহমান কর্মস্থলে না থাকার প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি। ওই ঘটনার জন্য এলএম মাসুদুর রহমান ও এএলএম আবদুল করিম তালুকদারকে দায়ী করা হয়েছে। মাসুদুর রহমানকে নোটিশ ফরম 'বি' পাঠানো হয়েছে। তাকে চাকরি থেকে কেন অপসারণ করা হবে না তা জানতে চেয়ে আগামি ১৪ কার্যদিবসের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছিল। তার জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় সরকারি চাকরি বিধিমালা অনুসরণ করে চাকরি থেকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। চাকরি যাওয়ার পর মাসুদুর রহমান আপিল করতে পারবেন জানিয়ে তিনি বলেন, আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ চাইলে শাস্তি কমাতে পারেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজুন - ২১
ফজর৩:৪৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৬৪৩.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.