নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২ মহররম ১৪৪০
র‌্যাফটের অংশবিশেষ খুলে পড়েছে আকাশবীণা'র
স্টাফ রিপোর্টার
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসে যুক্ত হয়েছে অত্যাধুনিক বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বোয়িংয়ের নাম দিয়েছেন 'আকাশবীণা'। গত ৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী এটির উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের ঠিক ৬ দিনের মাথায় অত্যাধুনিক এ উড়োজাহাজের সামনের একটি ইমার্জেন্সি এঙ্টি ডোরের র‌্যাফটের অংশবিশেষ খুলে পড়েছে। তবে বিমানটির ফ্লাইট পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে।

আকাশবীণার যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে র‌্যাফটের ঐ অংশ রিপ্লেসের আগ পর্যন্ত ৫২ যাত্রী কম পরিবহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি শোয়েব চৌধুরী। তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার

সকালে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বোর্ডিং ব্রিজে লাগানো অবস্থায় অতিরিক্ত তাপের কারণে র‌্যাফটের অংশবিশেষ খুলে যায়। দরজা ভেঙে যাওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

গতকাল বুধবার দুপুরে সিঙ্গাপুরে ড্রিমলাইনারের ট্রেনিং সেন্টার থেকে তিনি আরও বলেন, ফ্লাইট সেফটির প্রধান হিসেবে আমাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এ জাতীয় টুকটাক ঘটনা যে কোনো নতুন এয়ারক্রাফট পরিচালনার প্রথম দিকে ঘটে। র‌্যাফট খুলে যায় টেম্পারেচারের (তাপমাত্রা) কারণে। তাপমাত্রা বেড়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এটি খুলে যায়, তখন জরুরি নির্গমন গেটও খুলে যায়। এরপরও নতুন উড়োজাহাজ অপারেশনের আগে সংশ্লিষ্টদের আরও বেশি সজাগ থাকা জরুরি বলে মনে করেন সিনিয়র এই পাইলট।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গত মঙ্গলবার ভোর সোয়া ৪টার দিকে কুয়ালালামপুর থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকায় ফেরে ড্রিমলাইনার আকাশবীণা। যাত্রী নেমে যাওয়ার পর নিয়মিত গ্রাউন্ড চেকের অংশ হিসেবে বিমানের প্রকৌশল বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয় বিমানটি। পরবর্তী ফ্লাইটের প্রস্তুতির জন্য কেবিন ক্লিনিংসহ চেকআপ করা হয় আকাশবীণার। পরবর্তী ফ্লাইটের যাত্রীদের খাবার উড়োজাহাজে ওঠানোর সময় র‌্যাফটের অংশ বিশেষ খুলে যায়। পরবর্তীতে এটি বিমানের প্রকৌশল বিভাগে পরীক্ষার জন্য নেয়া হয়। ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুরের বিজি-০৮৪ ফ্লাইটটি ছাড়ার নির্ধারিত সময় ৮টা ২৫ মিনিটে থাকলেও এটি এক ঘণ্টা পরে উড্ডয়ন করে।

অপর একটি সূত্র জানায়, গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় ড্রিমলাইনার আকাশবীণার সিঙ্গাপুর ফ্লাইটের জন্য প্রস্তুতি চলছিল। এসময় বোর্ডিং ব্রিজে সংযুক্ত থাকা অবস্থায় বিএফসিসি থেকে যাত্রীদের জন্য খাবার তোলা হচ্ছিল। এসময় বিমানের প্রকৌশল বিভাগের স্টাফ মোস্তাফিজুর রহমান দরজা অন করতে ভুল বাটনে চাপ দেন। আর তাতেই জরুরি দরজার র‌্যাফট অংশটি খুলে ভেঙে পড়ে। খুলে যাওয়া অংশটি প্রকৌশল বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে সিঙ্গাপুরগামী ফ্লাইট চালু রাখা হয়। যদিও সেটি দেড় ঘণ্টা দেরিতে ছাড়া হয়। বিষয়টি তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিমানের প্রকৌশল শাখার পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান বলেন, তদন্তে যাদের নাম আসবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঐ ঘটনায় বিমানের প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমানকে তাৎক্ষণিকভাবে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মোস্তাফিজুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়ে বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি শোয়েব চৌধুরী বলেন, এর চেয়ে ছোট ঘটনা হলেও সাময়িকভাবে বরখাস্তের বিধান আছে।

র‌্যাফটের খুলে যাওয়া অংশ সংযোজনের বিষয়ে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, অংশটি আগামী শুক্রবার বিজি০০২ ফ্লাইটে লন্ডন থেকে ঢাকায় আনা হবে। এরপর সেটি সংযোজন করা হবে। র‌্যাফটের অংশ খুলে পড়লেও উড়োজাহাজটির ফ্লাইট পরিচালনায় সমস্যা হচ্ছে না বলে জানান বিমানের জেনারেল ম্যানেজার শাকিল মেরাজ। তিনি বিমানের পূর্বনির্ধারিত সব ফ্লাইট বহাল থাকবে বলেও সবাইকে আশ্বস্ত করেন।

বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি শোয়েব চৌধুরী আরও জানান, জরুরি অবস্থায় যাত্রীদের বিমান থেকে বের হওয়ার জন্য দরজার সঙ্গে থাকে এই র‌্যাফট। এটার মাধ্যমে যাত্রীরা বিমান থেকে দ্রুত বের হয়ে যেতে পারেন। আকাশবীণার একটি দরজা দিয়ে ৫২ জন যাত্রী বের হতে পারেন। চারটি ইমার্জেন্সি এঙ্টি ডোরের একটির র‌্যাফট না থাকায় ৫২ জন যাত্রী কম নিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করতে হবে বিমানকে। এটি সংযুক্তির পর সক্ষমতার ২৭১ যাত্রী নিয়েই উড্ডয়ন করতে পারবে আকাশবীণা।

বর্তমানে বিমানের বহরে অত্যাধুনিক বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ছাড়াও রয়েছে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০। ভাড়ায় নেয়া দুটি বোয়িং ৭৭৭-২০০ ইআর, দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, একটি এয়ারবাস এ-৩৩০, দুটি ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ। ১৩টি উড়োজাহাজ দিয়ে ১৫টি আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ৭টি রুটে চলাচল করছে বিমান।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ২০
ফজর৪:৫৬
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৫সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩১৬৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.