নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৮ ভাদ্র ১৪২৬, ১২ মহররম ১৪৪১
বাবা-ছেলেকে বাসচাপা : দুর্ঘটনা না হত্যাকাণ্ড তদন্তের দাবি তথ্যমন্ত্রীর
জনতা ডেস্ক
বাসচাপা দিয়ে বাবাকে হত্যার পর একই পরিবহনের আরেকটি বাস ছেলেকে চাপা দিয়ে আহত করার ঘটনা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ঘটনা দু'টি আদৌ দুর্ঘটনা নাকি হত্যাকা- বিষয়টি তদন্তের দাবি রাখে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। গতকাল বুধবার রাজধানীর শ্যামলীতে ট্রমা সেন্টারে চিকিৎসাধীন আহত ইয়াসির আলভীকে দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার সকালে উত্তরার তুরাগে ইস্ট ওয়েস্ট হাসপাতালের সামনে থেকে বাসে ওঠার সময় অপরদিক থেকে আরেকটি বাস এসে সংগীত পরিচালক পারভেজ রবকে চাপা দেয়।

এতে তিনি গুরুতর আহত হন। আহতাবস্থায় তাকে প্রথমে পঙ্গু হাসপাতাল ও পরে শহীদ সোহরাওয়র্দী হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সংগীত পরিচালক পারভেজ রব নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার বিষয়ে শনিবার উত্তরার কামারপাড়া এলাকায় পরিবহনটির সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপ করছিলেন তার ছেলে ইয়ামিন আলভী ও তার বন্ধু মেহেদী হাসান ছোটন। কিন্তু পরিবহনটির সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বাক-বিত-ার জেরে দু'জনের ওপরই বাস চালিয়ে দেন ভিক্টর পরিবহনের আরেক চালক। এতে তারা গুরুতর আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে নিকটস্থ একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছোটনের মৃত্যু হয় ও আলভী ট্রমা সেন্টারে চিকিৎসাধীন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, সংগীত পরিচালক পারভেজ রবকে বাসচাপা দিয়ে হত্যা করা হলো। এরপর একই পরিবহনের আরেকটি বাসের চাপায় পারভেজ রবের ছেলে আহত হলেন। ঘটনা দু'টি বিশেষ করে পরের ঘটনাটি আদৌ দুর্ঘটনা কিনা তদন্তের দাবি রাখে। পুলিশ এ ঘটনা দু'টির তদন্ত করছে। তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের বিচারের আওতায় আনা হবে। একের পর এক দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রথমত আমাদের দেশের কিছুকিছু ড্রাইভার বিশেষ করে বাস ও ট্রাকের ড্রাইভার খুবই বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালায়। অনেক ক্ষেত্রে দুর্ঘটনা নয়, ইচ্ছাকৃত চাপা দেওয়ার ঘটনাও ঘটছে। তাই সবগুলো দুর্ঘটনা নয়, অনেকগুলো হত্যাকা-। তারা দুষ্কৃতিকারী এবং দুর্বৃত্ত। কিছু চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই, ট্রাফিক আইন মানে না। বেপরোয়া এসব চালকদের অবশ্যই নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। সব শ্রমিক-মালিক সমিতিগুলো জনসাধারণ এবং প্রশাসন ঐক্যবদ্ধভাবে উদ্যোগ নিলে সড়কের বিশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। পারভেজ রবকে চাপা দেওয়া বাসের রুট পারমিট ছিল না, এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রুট পারমিট ছাড়া কীভাবে গাড়ি রাস্তায় বের হলো, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। এর সঙ্গে প্রশাসনের কেউ জড়িত হলেও তাকে শাস্তির আওতায় আনা হবে। সব সময় সড়কে শৃঙ্খলার কথা বলা হচ্ছে, কিন্তু কবে নাগাদ এটি সম্ভব হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সব দেশেই সড়ক দুর্ঘটনা হয়। কিন্তু এর ব্যাপকতা এবং বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে প্রশ্ন। সড়কে শৃঙ্খলা আনতে ১১১টি সুপারিশ করা হয়েছে। আশা করি, এগুলো বাস্তবায়ন হলে দুর্ঘটনা কমে আসবে।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২১
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫০
মাগরিব৫:৩১
এশা৬:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩২৪৩.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.