নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ১০ আগস্ট ২০১৯, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ৮ জিলহজ ১৪৪০
কোরবানি : ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত
ছৈয়দ আন্ওয়ার
মেহেরবান আল্লাহ মুসলমানদের জন্য বছরে দুইটি শ্রেষ্ঠ খুশির দিন উপহার দিয়েছেন। একটি ঈদুল ফিতর, অপরটি ঈদুল আযহা। দুই ঈদেরই রয়েছে দুই রকম বিশেষ বৈশিষ্ট্য ও তাৎপর্য। ঈদুল আযহা বা কোরবানির ঈদ আসে ত্যাগের মহিমা নিয়ে। আরবি 'আজহা' এবং 'কোরবান' উভয় শব্দের অর্থ- উৎসর্গ। 'কুরব্' ধাতু থেকে কোরবানি শব্দটির উৎপত্তি। এর অর্থ আত্মত্যাগ, উৎসর্গ বা বিসর্জন, নৈকট্য বা অতিশয় নিকটবর্তী হওয়া ইত্যাদি। ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ বিশ্ব মুসলিম মননে আত্মত্যাগ ও আত্মোৎসর্গের দৃঢ়প্রত্যয় গ্রহণের তাগিদ সঞ্চারিত করে।

এ কোরবান বা উৎসর্গের রয়েছে অর্থবহ এক ঐতিহাসিক পটভূমি। ইব্রাহিম (আ) স্বপ্নে তার সবচেয়ে প্রিয় বস্তু কোরবানি দেয়ার জন্য আদিষ্ট হন। এ জন্য তিনদিনে দৈনিক ১০০ করে মোট ৩০০ উট কোরবানি করলেন; কিন্তু বারবারই স্বপ্নে আদেশ করা হলো, 'তোমার প্রিয় বস্তু কোরবানি করো।' ঈমানের কঠিন পরীক্ষায় শেষ পর্যন্ত ইব্রাহিম (আ) উত্তীর্ণ হন। পরম সত্যের প্রবল আকর্ষণে তিনি আল্লাহর নির্দেশিত স্বপ্নের বাস্তবায়ন করে প্রাণপ্রিয় পুত্র ইসমাঈল (আ)কে কোরবানি করতে উদ্যত হয়েছিলেন। মুহূর্তে আশ্চর্যজনকভাবে আল্লাহর নির্দেশে ইসমাঈল (আ) সম্পূর্ণ নিরাপদে

সংরক্ষিত হলেন এবং সৃষ্টিকর্তার অসীম কুদরতে তদস্থলে পুত্রের বিনিময়ে বেহেশত থেকে আনীত কোরবানিকৃত দুম্বা উৎসর্গীত হলো।

কোরবানির পর মাংসের একটা অংশ চলে যায় আপনজনের মধ্যে। যারা কোরবানি দিতে পারেননি তাদের ও গরিবের ঘরে। এভাবে কোরবানি ঈদে প্রত্যেকের ঘরে ঘরেই পৌঁছে যায় মাংসের ভাগ। কোরবানির ঈদের সবচেয়ে ভালো দিকটি হলো সবার ঘরে মাংস পৌঁছে দেয়ার এই সাম্যের বিধান। এর চেয়ে চমৎকার আর কী হতে পারে? অনেক মানুষ আছেন, যারা বছরের মধ্যে কোরবানি উপলক্ষেই পরিতৃপ্তিসহকারে একটু মাংস খেতে পারেন। এই সবার ঘরে ঘরে আনন্দ পৌঁছে দেয়াটাই কোরবানির ঈদের মূল চেতনা। ত্যাগেও যে পাওয়ার আনন্দ আছে, ঈদুল আজহা আমাদের সেটাই মনে করিয়ে দেয় ।

পুনশ্চ: পশু কোরবানির মাধ্যমে আমাদের মাঝে বিরাজমান যাবতীয় পশুত্ব তথা মির্মমতা, ক্রোধ, হানাহানি, লোভ, পরশ্রীকাতরতা, সকল অশুভ ইচ্ছে ও কু-বাসনার কোরবানি হোক, সকল কু-রিপুর কোরবানি হোক। মানবতাবোধে উজ্জীবিত হওয়ার শিক্ষাই হলো কোরবানির মহান শিক্ষা। সত্য সুন্দর আর পবিত্রতায় সকল কু-রিপুকে কোরবানি করে ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হোক এই কামনা মহান করুণাময় মেহেরান আল্লাহ পাকের দরবারে।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজুন - ৩
ফজর৩:৪৪
যোহর১১:৫৭
আসর৪:৩৬
মাগরিব৬:৪৫
এশা৮:০৯
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪০
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২২০৯৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.