নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ জুলাই ২০১৭, ৩ শ্রাবণ ১৪২৪, ২৩ শাওয়াল ১৪৩৮
আশুলিয়ার ৪ 'জঙ্গি' রিমান্ডে ২ মামলা
স্টাফ রিপোর্টার
ঢাকার আশুলিয়ায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে আত্মসমর্পণকারী চার 'জেএমবির' বিরুদ্ধে দুইটি মামলা হয়েছে। এছাড়া আত্মসমর্পণকারী চার 'জঙ্গি'কে চারদিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। র‌্যাব-৪ এর সুবেদার শরিফুল ইসলাম খান বাদী হয়ে গতকাল সোমবার সন্ত্রাস বিরোধী এবং অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে পৃথক দুটি মামলা করেন বলে আশুলিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ আবদুল আউয়াল জানান। তিনি বলেন, মামলায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযানে আত্মসমর্পণকারী সারোয়ার-তামিম গ্রুপের চার জঙ্গিকে আসামি করা হয়েছে। এরা হলেন ময়মনসিংহের ত্রিশালের সাংকিভাঙ্গা গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে মোজাম্মেল হক মাসুদ (১৮), চট্টগ্রামের রাউজানের কদলপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে ইরফানুল ইসলাম ওরফে সুফিয়ান খান ওরফে এরফান (২০), গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালি গ্রামের রেজাউল করিমের ছেলে রাশেদুন্নবী রাশেদ (২০) ও সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থানার হুগলি গ্রামের আবদুল হান্নানের ছেলে মো. আলমগীর (১৮)। গত ২৮ এপ্রিল সাভার মডেল থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে দায়ের এক মামলায় গতকাল সোমবার আদালত তাদের চার দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছে। শনিবার রাত ১টার দিকে আশুলিয়ার চৌরাবালি এলাকায় ইব্রাহীমের ভাড়া দেওয়া টিনশেড বাড়ি ঘিরে ফেলে র‌্যাব। প্রায় ১১ ঘণ্টা বাড়িটি ঘিরে রাখার পর সন্দেহভাজন চার জঙ্গি আত্মসমর্পণ করে। আজাদ নামের এক লোক গার্মেন্ট কর্মী পরিচয় দিয়ে গত মাসে আড়াই হাজার টাকায় টিনশেডের ওই বাসা ভাড়া নেন বলে বাড়ির মালিক ইব্রাহীম র‌্যাবকে জানিয়েছিলেন। ওই চার যুবকের আত্মসমর্পণের পর ডগ স্কোয়াড দিয়ে তল্লাশি চালিয়ে বাড়ির ভেতরে কয়েকটি আইইডি (ইমপ্রোভাইজড এঙ্প্লোসিভ ডিভাইস) পাওয়ার কথা জানায় র‌্যাব। পরে বোমা নিস্ক্রিয়কারী দল তিনটি বোমা নিস্ক্রিয় করে। বাড়িটি তল্লাশি করে র‌্যাব দুটি বিদেশি পিস্তল, ছয় রাউন্ড গুলির খোসা, দুটি ম্যাগজিন ও আটটি জিহাদী বই উদ্ধার করে। বাড়ির মালিক ইব্রাহিমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। পরে গতকাল সোমবার তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। গতকাল সোমবারও ওই বাড়ির সামনে প্রহরায় থাকে র‌্যাব। জঙ্গিদের ভাড়া নেওয়া কক্ষগুলো তালা লাগিয়ে দিয়েছে তারা। র‌্যাব-৪ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর আবদুল হাকিম বলেন, জঙ্গি অভিযানের রাতে বাড়িটির মালিক ইব্রাহিমকে আটকের পর জিঞ্জাসাবাদ শেষে তার স্ত্রীর জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে বাড়িটিতে ফরেনসিক বিভাগের কাজের জন্য র‌্যাব সদস্যরা পাহারায় রয়েছে। বাড়িটি খুলে দেওয়া হলে লোকজনের অবাধ যাতায়াতে মামলার গুরুত্বপূর্ণ আলামত নষ্ট হয়ে যাবে। এদিকে, গতকাল সোমবার ঢাকার মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে এ চারজনকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) উনু গং হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম ফাইরুস তাসনিন প্রত্যেককে চারদিন করে রিমান্ড দেন। আদালতের সরকারি কৌঁসুলি আনোয়ারুল কবির বাবুল জানান, আদালতে রিমান্ড শুনানির সময় আসামিদের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। তিনি বলেন, চার আসামি হলেন- মোজাম্মেল হক, রাশেদুন্নবী, ইরফানুল ইসলাম ও আলমগীর হোসেন। গত শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে আশুলিয়ার নয়ারহাট চৌরাবালি এলাকার একটি বাড়ি ঘিরে ফেলেন র?্যাব সদস্যরা। বাড়িটির মালিক ইব্রাহিম নামের এক ব্যক্তি। তাঁকে তখন আটক করা হয়। আধাপাকা একতলা বাড়িটি পাকা রাস্তার পাশে। বেশ নির্জন এলাকা। ওই বাড়ি থেকে একটু দূরে একটি টিনের বাড়ি আছে। বাড়ির চারপাশেই ক্ষেত ও গাছপালা ঘেরা। এর তিন পাশেই পানি। বাড়ির মালিকের বরাত দিয়ে গত রোববার সকালে র?্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, আজাদ নামের এক ব্যক্তি তৈরি পোশাক শ্রমিক পরিচয় দিয়ে দুই মাস আগে বাড়িটি ভাড়া নেন। সকালে সেখানে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী ইউনিটসহ অন্যরা পৌঁছায়। তারপর অভিযান আরো জোরদার করা হয়। রাতে অভিযানের শুরুতেই বাড়িটির আশপাশ থেকে অন্য বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। অতীতে দেখা গেছে, জঙ্গিরা এ সময়ে বোমা ও গুলি ছোড়ে। সে জন্যই জানমালের নিরাপত্তায় বাসিন্দাদের নিরাপদ দূরে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত ৩টার দিকে প্রথম বাড়ির ভেতর থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়া হয়। এ সময় বেশ কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণও ঘটানো হয়। সকালেও একইভাবে গুলি ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। র?্যাব জানায়, বাড়িটির চারপাশে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে ভেতর থেকে বেশ কয়েকটি গুলি করা হয়। বোমাও ছোঁড়া হয়। বাড়ির ভেতরে থাকা বাসিন্দাদের প্রতিরোধের মুখে বাড়িটি ঘিরে আরো শক্ত অবস্থান নেন র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় হ্যান্ডমাইকে বাড়িটির ভেতরে থাকা বাসিন্দাদের নিরস্ত্র হতে বলা হয়। তাদের আত্মসমর্পণেরও আহ্বান জানানো হয়। তবে তাতে কর্ণপাত না করে জঙ্গিরা ভোরের দিকে র?্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে দুটি গুলি করে। এ সময় বোমার বিস্ফোরণও ঘটানো হয়।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১৩
ফজর৫:১১
যোহর১১:৫৩
আসর৩:৩৮
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩৪
সূর্যোদয় - ৬:৩২সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩১৪৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.