নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০১৯, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ৯ শাওয়াল ১৪৪০
সাংবাদিক সম্মেলনে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ
বান্দরবানে এক বৌদ্ধ ধর্মগুরু জনগণের জমি জবরদখল করছেন
বান্দরবান থেকে এম. এ. হাকিম চৌধুরী
বান্দরবানে এক বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু উপঞঞা জোত মহাথের প্রকাশ উচহ্লা ভান্তের বিরুদ্ধে জনসাধারণের জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে, আর সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের সাথে সাংবাদিক সম্মেলন করে উচহ্লা ভান্তের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন জানিয়েছে ভুক্তভোগী জনগণ।

বুধবার সকালে বান্দরবানের একটি রেস্টুরেন্টে সাংবাদিক সম্মেলন করে ভুক্তভোগী জনগণ উপঞঞা জোত মহাথের প্রকাশ উচহ্লা ভান্তের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন। এসময় বক্তারা অভিযোগ করে বলেন,

উপঞঞা জোত মহাথের প্রকাশ উচহ্লা ভান্তে এক বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুভান্তে হয়েও সাধারণ জনগণের সাথে প্রতারণা করে যাচ্ছে। ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে তিনি বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান তৈরির নামে একে একে জনগণের জমি দখল করে নিচ্ছে, আর সাধারণ জনগণ এর বিচার চাইলে উল্টো উচহ্লা ভান্তে তাদের বিরুদ্ধে মামলা ও হামলা চালিয়ে তাদের হয়রানি করছেন।

এসময় বক্তারা আরো বলেন, সর্বশেষ উচহ্লা ভান্তে ২০১৪ সালের ৫এপ্রিল বান্দরবান ফাতিমা রাণী গীর্জার ৫ দশমিক ৫৭ একর ধানী জমি জোর করে দখল করে নেয়। এই জমিতে উৎপাদিত শস্য থেকে তিনশরও বেশি অসহায় শিশু কিশোরদের অন্নের যোগাড় হতো যা বর্তমানে জোর করে উচহ্লা ভান্তে ভোগ করে যাচ্ছেন, আর এতে বান্দরবান ফাতিমা রাণী গীর্জার অসহায় শিশু কিশোরদের অন্নের যোগাড় করতে কষ্ট হচ্ছে।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী আমেনা বেগম বলেন, আমরা ৫ ভাই বোন দীর্ঘদিন আমাদের জমিতে ছিলাম। আমার মা মারা যাওয়ার পর ও আমরা মায়ের কবর দিলাম আমাদের জমিতে কিন্তু উপঞঞা জোত মহাথের প্রকাশ উচহ্লা ভান্তে শক্তি প্রয়োগ করে আমাদের মত নিরীহ মানুষের জমি দখল করে নিয়েছেন। এসময় ভুক্তভোগী আমেনা বেগম আরো বলেন, এখন আমরা ঈদের দিন পর্যন্ত আমার মায়ের কবর জেয়ারত করতে পারছি না। আমাদের জমিতে আমাদের পরিবারের লোক উপস্থিত হলে মাত্রই উচহ্লা ভান্তের তীর বাহিনী ও কান্টা বাহিনীর ছেলেরা আমাদের পাহাড়ের উপর থেকে কান্টা মারে ও ঢিল ছুঁড়ে তখন আমরা প্রাণভয়ে পালিয়ে আসি। আমরা প্রশাসনের কাছে উচহ্লা ভান্তের এই ধরনের নোংরা কাজের বিচার চাই।

এসময় সাংবাদিক সম্মেলনে ভুক্তভোগী বড়ুয়া কল্যাণ সমিতির প্রেসিডেন্ট দিলীপ বড়ুয়া বলেন, উপঞঞা জোত মহাথের প্রকাশ উচহ্লা ভান্তে ধর্মের নামে সাধারণ মানুষের সাথে জমি দখলের কার্যক্রম চালাচ্ছেন। কেউ তার বিরুদ্ধে কোন কথা বললেই তিনি তাকে মামলা দিয়ে হয়রানি করেন। দিলীপ বড়ুয়া আরো বলেন, উচহ্লা ভান্তে রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি থেকে বহিরাগত লোক এনে বান্দরবানের বিভিন্ন জায়গায় বসতি স্থাপন করে দিচ্ছে এবং তাদের সাথে নিয়ে প্রতিনিয়ত সাধারণ জনগণের জমি দখল করে যাচ্ছে। এসময় তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি উচহ্লা ভান্তে তার মন্দিরের নির্মাণ কাজের জন্য রোহিঙ্গা নাগরিকদের কাজে লাগাচ্ছে এবং এই রোহিঙ্গা নাগরিকদের কাজ করার কোন অনুমোদন রয়েছে কিনা তা প্রশাসনের খতিয়ে দেখা দরকার। এসময় সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তারা সরকারের কাছে উপঞঞা জোত মহাথের প্রকাশ উচহ্লা ভান্তের এহেন কর্মকা- বন্ধ করার আহবান জানান এবং সঠিক তদন্ত করে ভুক্তভোগী জনগণের জমি স্ব-স্ব মালিককে ফেরত প্রদানের জোর দাবি জানান। সাংবাদিক সম্মেলনে এসময় উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন রাজকুমার নু মং প্রু (হেডম্যান), চট্টগ্রাম কাথলিক ধর্মপ্রদেশ ফাদার জেরোম ডি'রোজারিও, বড়ুয়া কল্যাণ সমিতির প্রেসিডেন্ট দিলীপ বড়ুয়া। সাংবাদিক সম্মেলনে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবক ফিলিপ ত্রিপুরা, জর্জ ত্রিপুরা, সিংইয়ং ম্রো, দিলীপ চক্রবর্তী, প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, সিনিয়র সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনু, মূছা ফারুকী, বুদ্ধজোতি চাকমাসহ ভুক্তভোগী জনসাধারণ।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ২৩
ফজর৪:৫৯
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৮সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬১১২.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.