নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ১৯ মে ২০১৭, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২২ শাবান ১৪৩৮
সৌদি আরব সফরে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা
মক্কা-মদিনা আক্রান্ত হলে সেনা পাঠাতে প্রস্তুত বাংলাদেশ
স্টাফ রিপোর্টার
সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটে সেনা না পাঠাতে বাংলাদেশের অবস্থানের পরিবর্তন হয়নি। তবে পবিত্র মক্কা ও মদিনার ২ মসজিদ হুমকিতে পড়লে প্রয়োজনে সেনা পাঠাতে প্রস্তুত থাকবে বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব সফর উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এ কথা বলেন। সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের আমন্ত্রণে ৩ দিনের সরকারি সফরে আগামীকাল শনিবার রিয়াদ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সচিবালয়ে তার দফতরে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদের আমন্ত্রণে ২০ থেকে ২৩ মে তিনি সৌদি আরব সফর করবেন। আগামী ২১ মে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে 'আরব ইসলামিক আমেরিকান সামিটে' যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং আরব বিশ্ব ও অন্যান্য মুসলিম দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানগণ যোগ দেবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী এ সম্মেলনে সন্ত্রাসবাদ ও উগ্র জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের সুদৃঢ় অবস্থান এবং সন্ত্রাস দমনে বাংলাদেশের সামগ্রিক সাফল্য তুলে ধরবেন। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী এ নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যৌথভাবে করণীয় বিভিন্ন প্রস্তাবও দিতে পারেন বলেও জানান তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে মাহমুদ আলী বলেছেন, সৌদি আরবের পবিত্র মক্কা ও মদিনার ২ মসজিদ হুমকিতে পড়লে সৌদি আরবের সহযোগিতায় প্রয়োজনে সৈন্য পাঠাতে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে। তবে কেন মক্কা ও মদিনার ২ মসজিদের হুমকি বা আক্রান্ত হওয়ার প্রশ্ন আসছে তার কোনো ব্যাখ্যা দেননি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, মক্কা ও মদিনা মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও পবিত্রতম স্থান। মুসলমান দেশ হিসেবে ২ পবিত্র মসজিদের ব্যাপারে যে ভক্তি ও ভালোবাসা আছে, যদি মক্কা ও মদিনার মসজিদ হুমকিতে পড়ে এবং সৌদি আরব আমাদের সহযোগিতা চায়, তাহলে অবশ্যই সৈন্য পাঠাবো। যদি এরকম কিছু হয়, তবে সামরিক সাহায্য দিতে প্রস্তুত থাকবো।

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের ব্যাপারে বাংলাদেশের আগের অবস্থানই অটুট আছে কিনা জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা আগের অবস্থানেই আছি।

সামরিক জোটে গিয়ে কি লাভ হবে বাংলাদেশের? এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সৌদি ও ইরানের দ্বন্দ্বের মধ্যে ঢুকে যাচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মাহমুদ আলী বলেন, এ ধরনের কোনো সম্ভাবনা নেই। আশঙ্কাও ভিত্তিহীন। বরং প্রস্তাবিত সামরিক জোট মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আনতে সহায়ক হবে। এমনকি ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের বিরোধ নিরসনেও সেটি সহায়ক হবে। বাংলাদেশও সেটাই চায়।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদের মতো বৈশ্বিক সমস্যা মোকাবিলা করাই সৌদি কেন্দ্রের প্রধান লক্ষ্য। মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে এ বিষয়ে সহযোগিতার ক্ষেত্র তৈরি করাই এর উদ্দেশ্য। সৌদি কেন্দ্রের নামকরণ হয়েছে 'গ্লোবাল সেন্টার ফর কমব্যাটিং এঙ্ট্রিমিস্ট থট'। বাংলাদেশ মনে করে, এই যে হানাহানি চলছে, এর অবসান হওয়া উচিত।

বাংলাদেশে ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণ করে দেয়ার বিষয়ে সৌদি সরকার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তা থেকে তারা সরে আসেনি বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রিয়াদে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলনে আগামী দিনে সন্ত্রাস মোকাবিলা, ফিলিস্তিন সঙ্কটসহ এ অঞ্চলে চলমান ভূ-রাজনৈতিক বিষয়াবলী নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে বলে ধারণা করা যায়। প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সুদৃঢ় অবস্থান তুলে ধরবেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীমে - ২৯
ফজর৩:৪৫
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৪৩
এশা৮:০৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৩৮
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৭৯১.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.