নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ১৯ মে ২০১৭, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২২ শাবান ১৪৩৮
ক্রমেই বেরিয়ে আসছে নাঈম আশরাফের অন্ধকার জগতের তথ্য
৭ দিনের রিমান্ডে নিয়ে পুলিশ ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করছে
হাবিবুর রহমান
সাধারণ ফেরিওয়ালার ঘরে জন্ম নেয়া এইচএম হালিম ঢাকায় এসে নাম বদলে হয়েছে নাঈম আশরাফ। প্রকৃতপক্ষে সে একজন প্রতারক। স্কুলজীবন থেকেই এ কাজে তার হাতেখড়ি। এরই মধ্যে গণমাধ্যমে বেরিয়ে আসছে তার অন্ধকার জীবনের ভয়ঙ্কর সব তথ্য। অপরদিকে, বনানীর দ্য রেইনট্রি হোটেলে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত নাঈম আশরাফ ওরফে মো. আব্দুল হালিম ওরফে 'চিটার হালিম' জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথাও স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম। বাবার নাম বদল করে বিয়ে করেছে ৩টি। আগের ২ স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলেও তৃতীয় স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকার কালসি এলাকায় ভাড়াবাড়িতে চলছে তার সংসার। নাঈম আশরাফের কয়েক ঘনিষ্ঠজন জানিয়েছেন, ধর্ষণ ও প্রতারণার মতো এরকম অনেক ঘটনা ঘটিয়েছে নাঈম আশরাফ। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম ইমেকার্সে কাজ করার সুবাধে সহজেই মডেল, অভিনেত্রী, উপস্থাপিকাদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তুলতো। কিন্তু কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। যে কারণে তার সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি। নাঈম আশরাফের নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন এমন একজন মডেল জানিয়েছেন, একই কায়দায় মদ পান করিয়ে তার সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছিল নাঈম আশরাফ। ঘটনাটি ঘটেছিল গত বছরের ১০ মার্চ রাতে। ঢাকার আর্মি স্টেডিয়ামে সেদিন চলছিল 'অরিজিৎ সিং সিম্ফনি অর্কেস্ট্রা' শিরোনামের কনসার্ট। ঐ কনসার্টে ডেকে এনে গাড়িতে করে কাজের কথা বলেই তাকে বনানীর একটি হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। প্রথমে যেতে না চাইলেও নাঈমের প্রতি বিশ্বাস থাকায় সেখানে গিয়েছিলেন। আদালত সূত্রে জানা গেছে, পুলিশ নাঈমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে হাজির করলে মহানগর হাকিম এসএম মাসুদ জামান শুনানি শেষ ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত বুধবার রাতে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং থেকে নাইকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, বনানীর দুই তরুণী ধর্ষণের মামলার অন্যতম আসামি নাঈম আশরাফ ওরফে মো. আব্দুল হালিম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। এর আগে নাঈম আশরাফ ওরফে আবদুল হালিমকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং-এ গ্রেফতারের পর ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কার্যালয়ে আনা হয়।

বেশ কয়েকদিন ধরে নাঈম ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে সক্রিয় ছিলেন। তবে এর আগে গ্রেফতার এড়াতে তিনি সামাজিক মাধ্যমগুলো ডি-অ্যাক্টিভ করেন। এদিকে, গত মঙ্গলবার রাজধানীর বনানীতে দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের গাড়িচালক বিল্লালকে ৪ দিনের ও দেহরক্ষী রহমতকে ৩ দিনের রিমান্ড দেন আদালত। ঢাকার মহানগর হাকিম লস্কর সোহেল রানার আদালতে তাদের হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের পুলিশ পরিদর্শক ইসমত আরা এমি।

শুনানি শেষে আদালত বিল্লালের ৪ দিন ও রহমতের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় ওয়ারী থানার নবাবপুর রোডের দি-নিউ ঢাকা বোর্ডিং থেকে আসামি মো. বিল্লাল হোসেনকে (২৭) গ্রেফতার করা হয়। তিনি সুজন নামে সেখানে রুম ভাড়া করেছিলেন। বিল্লালের গ্রামের বাড়ি নাটোরের বড়াইগ্রাম থানার দাড়িডোমা গ্রামে। জিজ্ঞাসাবাদে বিল্লাল র‌্যাবকে জানিয়েছেন, ঐদিন দুই তরুণীর ভিডিও ধারণ করা হয়েছিল। হোটেলের রুমের মধ্যে তাদের হাতে ইয়াবা দিয়েও ভিডিও করা হয়। বলা হয়েছিল, তারা যদি এই ঘটনা ফাঁস করে দেন তাহলে ইয়াবা ব্যবসায়ী বলে মামলা দিয়ে তাদের ধরিয়ে দেয়া হবে। তবে বিল্লাল জানান, মোবাইলে ধারণ করা সেই ভিডিও তিনি ডিলিট করে দিয়েছেন। ধষর্ণের সময় বিল্লাল বাথরুমে ছিলেন এবং তিনি সমস্ত ঘটনা দেখেছেন।

গুলশানে ওয়েস্টিন হোটেলের সামনে থেকে সন্ধ্যায় সাফাতের বডিগার্ড রহমতকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। রহমত তার এক আত্মীয়ের বাসায় যাচ্ছিলেন। তার কাছ থেকে একটি শটগান এবং ১০ রাউন্ড গুলি পাওয়া গেছে।

গত ৫ মে ভিকটিম দুই তরুণীর একজন বনানী থানায় অভিযোগ দেন। অভিযোগে পাঁচজনকে আসামি করা হয়। এজাহারের বর্ণনা অনুযায়ী, গত ২৮ মার্চ বনানীর রেইনট্রি হোটেলে সাফাত ও নাঈম দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন। অন্য তিনজন ছিলেন সহায়তাকারী। ৬ মে মামলার পর পালিয়ে যাওয়া সাফাত ও সাদমানকে ১১ মে সিলেট থেকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে তারা রিমান্ডে রয়েছেন।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ২৫
ফজর৫:০১
যোহর১১:৪৬
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩০
সূর্যোদয় - ৬:২০সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩০৭২.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.