নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৭ মে ২০১৮, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৩০ শাবান ১৪৩৯
পাইকগাছায় যুবলীগ নেতার মৎস্য ঘের দখল
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি
পাইকগাছায় যুবলীগ নেতা অনুপ কুমার ঘোষের মৎস্য ঘের জবরদখল করায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে এমপি শেখ মো. নূরুল হক পৌরযুবলীগ নেতা জাহিদ হোসেনকে দিয়ে উপজেলা যুবলীগ নেতা অনুপ কুমার ঘোষের লীজ ঘেরটি জবরদখল করার ঘটনা ঘটিয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার গদাইপুর গ্রামের মৃত নরেন্দ্রনাথ ঘোষের পুত্র যুবলীগনেতা অনুপ কুমার ঘোষ কয়েক বছর যাবৎ বাইশারাবাদ মৌজায় প্রায় ১২ বিঘা জমিতে জমির মালিকদের কাছ থেকে লীজ ডিড নিয়ে ও এফসিডিআই প্রকল্পের অনুমোদন নিয়ে মৎস্য ধান চাষ করে আসছেন। গত রোববার সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় পাইকগাছা পৌরসভার সরল ৫ নং ওয়ার্ডের করিম গাজীর পুত্র জাহিদুল গাজী তার লোকজন নিয়ে অনুপ ঘোষের লীজ ঘের জবর দখল করেন। জবরদখলকারী জাহিদ জানান, এমপি'র নির্দেশে ঘের দখল করা হয়েছে। ওই রাতেই অনুপ কুমার ঘোষ পাইকগাছা থানায় জাহিদুল গাজীসহ ৬-৭ জন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে বিবাদী করে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। সোমবার সকালে এসআই শরীফ উদ্দীন লীজ ঘের পরিদর্শনে গেলে জবর দখলকারীরা টের পেয়ে পালিয়ে গেলেও পরবর্তীতে আবারও তারা অনুপ্রবেশ করেছে।

উল্লেখ্য, অনুপ ঘোষ এমপি'র একনিষ্ট কর্মী হিসাবে এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি ছিল। বিভিন্ন কারণে সমপ্রতি অনুপ কুমার ঘোষ প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমানের কয়রা ও পাইকগাছা জনসভায় যোগদান ও তার পক্ষে কাজ করায় তিনি এমপি'র রোনানলে পড়েন। এ কারণে অনুপ ঘোষের মৎস্য লীজ ঘের দখল করার ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকার রাজনৈতিক ব্যক্তিরা ধারণা করছে। তাছাড়া ঘের দখলের রাতে অনুপ ঘোষের ভাইপো সুমন ঘোষ ঘেরে অবস্থান করার সময় এমপি নূরুল হক জাহিদকে ফোন করে বলেন, পুলিশ ঘেরে যাবে না তোমরা নিশ্চিন্তে ঘেরে থাকো। যা মোবাইল ফোনে লাউড স্পিকার দিয়ে সুমন ঘোষকে শোনান জাহিদ। এ বিষয়ে এমপি নুরুল হককের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনুপ আমাকে ভুলে গেছে। সে আমাকে চেনে না। সে অনেক বড় নেতা হয়ে গেছে। তার ঘের দখল করবে কার এতো ক্ষমতা। ঘের দখলের জন্য কাউকে পাঠাইনি ও তারা কি জন্য ঘের দখল করেছে তা তিনি জানেন না। তিনি আরো বলেন, মাছ ধরা বন্ধ থাক, আমি পাইকগাছায় এসে একটি স্থায়ী ব্যবস্থা করে দিবো।

এ বিষয়ে থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান, থানায় অভিযোগ করার সময় তিনি খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দায়িত্বে ছিলেন। থানায় ফিরে আসার পরে অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষকে ডেকে বিষয়টি নিস্পত্তি করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীআগষ্ট - ২০
ফজর৪:১৬
যোহর১২:০২
আসর৪:৩৬
মাগরিব৬:৩১
এশা৭:৪৭
সূর্যোদয় - ৫:৩৬সূর্যাস্ত - ০৬:২৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪০৯১.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.