নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৩৯
আসিফার পরিবারের নিরাপত্তা নিশ্চিতে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ
জনতা ডেস্ক
ভারতের সুপ্রিম কোর্ট জম্মু ও কাশ্মিরের প্রাদেশিক সরকারকে ধর্ষণ ও হত্যার শিকার ৮ বছর বয়সী শিশু আসিফার পরিবার ও তাদের আইনজীবীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের নির্দেশ দিয়েছে। সোমবার আসিফার বাবা নিরাপত্তা ঝুঁকির কথা জানিয়ে মামলাটি কাশ্মির আদালত থেকে সরিয়ে চন্দ্রিগড় আদালতে স্থানান্তরে আবেদন জানালে আদালত এসব আদেশ দেয়। ইন্ডিয়ান এঙ্প্রেস জানিয়েছে মামলা স্থানান্তরে প্রাদেশিক সরকারের মতামত চেয়েছে আদালত। এ বছরের মধ্য জানুয়ারিতে কাশ্মিরের কাঠুয়ার উপত্যকায় ঘোড়া চড়ানোর সময় অপহৃত হয় আসিফা। মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় অভিযোগপত্র জনসম্মুখে আনা হলে বিচার দাবিতে সোচ্চার হয়ে ওঠে সারা ভারত। আদালতে দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়, ওই শিশুকে অপহরণের জন্য অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ও দেবীস্থান মন্দিদের হেফাজতকারী সানজি রাম তার ভাগ্নে ও একজন পুলিশ সদস্যকে নির্দেশ দেয়। নির্দেশ বাস্তবায়নের পর সাত দিন ধরে মন্দিরে আটকে রেখে একদল হিন্দু পুরুষ ধর্ষণ করে আসিফাকে। পরে মাথায় পাথর মেরে ও গলা টিপে হত্যা করা হয় তাকে। আসিফাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও হত্যাকা-ের ঘটনায় আটজনকে অভিযুক্ত করেছে ভারতের আদালত। সোমবার থেকে কাশ্মিরের কাঠুয়ার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এসব অপরাধীর বিচার কাজ শুরু হয়েছে।

একই দিন ভারতের সর্বোচ্চ আদালতে নিজেদের নিরাপত্তা ঝুঁকির কথা জানিয়ে মামলা স্থানান্তরের আবেদন জানায় আসিফার বাবা। আগের দিন এই মামলার আইনজীবী দীপিকা এস রাজাওয়াত। রবিবার এনডিটিভির কাছে তিনি অভিযোগ করেন, তাকে ধর্ষণ ও হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। নিরাপত্তা ঝুঁকির কথা বলেছেন এই মামলায় আসিফার পরিবারের অপর আইনজীবী তালিব হুসেইনও। সোমবার আসিফার পরিবাবের পাশাপাশি তাদেরও নিরাপত্তা নিশ্চিতের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এঙ্প্রেসের খবরে বলা হয়েছে, এখন পর্যন্ত এই মামলার অভিযোগ প্রমাণে রাজ্য পুলিশের তৎপরতায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন আসিফার বাবা। তবে অভিযুক্তদের নিজেদের নির্দোষ দাবি করে আদালতের কাছে করা সিবিআইয়ের নারকো পরীক্ষার আবেদনের বিরোধিতা করেন। উল্লেখ্য, নারকো এনালাইসিসের ক্ষেত্রে স্নায়ু শিথিলকারী সোডিয়াম পেন্টোথাল অথবা স্কোপোলামাইন ধরনের ওষুধ ব্যবহৃত হয়। অভিযুক্ত অথবা সন্দেহভাজন ব্যক্তির শিরায় সিরিঞ্জের মাধ্যমে প্রবেশ করানো হয়। এর প্রভাবে অভিযুক্ত ব্যক্তি আধা সচেতন এবং আধা অচেতন অবস্থায় থাকে; তাকে তখন একের পর এক প্রশ্ন করা হতে থাকে। ঘোরের মধ্যে স্বতস্ফূর্তভাবে প্রশ্নের উত্তর দিতে থাকে সে। এগুলোকে তার অবচেতন মনের গোপন কথা বলে ধরে নিয়ে উত্তরগুলোকে সত্য বলে ধারণা করা হয়।

কাঠুয়ার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সঞ্জয় গুপ্তের আদালতে সোমবার সাত আসামিকে হাজির করা হয়। নিজেদের নির্দোষ দাবি করে নারকো পরীক্ষার আবেদন জানালে আদালত ২৮ এপ্রিল পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছে। মামলার অপর আসামি অভিযুক্ত কিশোর আলাদাভাবে জামিন চাইলে ২৬ এপ্রিল সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বলেছে আদালত। সংক্ষিপ্ত শুনানি শেষে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আসামিদের আদালত থেকে কারাগারে ফিরিয়ে নেওয়া হয়।

আসিফাকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় অভিযুক্তদের পক্ষ নিয়ে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখার জের ধরে পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রী মাহবুবা মুফতি সরকারের শিল্পমন্ত্রী চন্দ্র প্রকাশ গঙ্গা এবং বনমন্ত্রী লাল সিং। অভিযুক্তদের পক্ষে ১২ দিনের ধর্মঘট পালন করছেন দ্য জম্মু বার অ্যাসোসিয়েশন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজুলাই - ২২
ফজর৩:৫৮
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৪৯
এশা৮:১১
সূর্যোদয় - ৫:২৩সূর্যাস্ত - ০৬:৪৪
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৭৬৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.