নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৩৯
রামপালে বোরোর বাম্পার ফলন
রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
রামপালে চলতি বোরো মৌসুমে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। ঝড় বৃষ্টির শঙ্কা থাকলেও এখনও পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় স্বস্তিতে রয়েছেন কৃষকরা। রামপাল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. নাছরুল মিল্লাত জানান, চলতি বোরো মৌসুমে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি আবাদ হয়েছে। সরকারের কৃষি বান্ধব নানা পদক্ষেপের কারণে এবং আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় উত্তরোত্তর আমান এবং বোরো আবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রোপা আমনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৬ হাজার ৪শ ১০ হেক্টর জমি এবং বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্র ধরা হয়েছে ৪ হাজার ১শ ৫ হেক্টর জমিতে। এ মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও ১৮০ হেক্টর জমিতে বেশি আবাদ হয়েছে। চলতি অর্থবছরে চালের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১৮ হাজার ৬শ ৭০ মেট্রিক টন। উপজেলায় ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩শ ৩০ জন মানুয়ের বিপরীতে খাদ্য চাহিদা রয়েছে প্রায় ৩৩ হাজার টন। আমন এবং বোরো উৎপাদন মিলে খাদ্য চাহিদার তুলনায় খাদ্য ঘাটতি হতে পারে ১ হাজার টন। গত ২০১৫-১৬ অর্থবছরে উপজেলার জনসংখ্যা ছিল ১ লাখ ৬৩ হাজার ৬৫০ জনের বিপরীতে খাদ্য চাহিদা ছিল ৩১ হাজার ৮শ ২৬ টন। ঐ বছর আমন আবাদ হয়েছিল ৫ হাজার ৫শ ৪৬ হেক্টরে। চাল উৎপাদন হয়েছিল ১১ হাজার ৫শ ৯০ মেট্রিক টন। আর বোরো আবাদ ৪ হাজার ৪শ ৫০ হেক্টর জমিতে। চালের উৎপাদন ছিল ১৬ হাজার ৮শ ৮৫ মেট্রিক টন। দুটি আবাদে উৎপাদন হয়েছিল ২৮ হাজার ৪শ ৭৫ মেট্রিক টন চাল। খাদ্য চাহিদা ছিল ৩১ হাজার ৮শ ২৬ টন। ঐ বছর খাদ্য ঘাটতি ছিল প্রায় ২ হাজার ৩শ ৫০ মেট্রিক টন। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রোপা আমন চাষ হয়েছিল ৫ হাজার ৯শ হেক্টর জমিতে এবং বোরো আবাদ হয়েছিল ৪ হাজার ৫শ ৩০ হেক্টর জমিতে। ঐ বছর খাদ্য উৎপাদন হয়েছিল ৩০ হাজার ৭শ ৭৫ মেট্রিক টন। ১ লাখ ৬৫ হাজার ৯শ ৭৪ জন জনসংখ্যার বিপরীতে খাদ্য চাহিদা ছিল ৩২ হাজার ৩৮ টন। খাদ্য ঘাটতি ছিল ১ হাজার ২শ ৭৮ মেট্রিক টন। কৃষি কর্মকর্তা আরো জানান, কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ, প্রশিক্ষণ, লিফলেট বিতরণ ও মাঠপর্যায়ে পরামর্শ প্রদান করে কৃষকদের ব্যাপকভাবে সহায়তা প্রদান করায় রোগবালাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এতে সার্বিকভাবে উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। উপজেলার গোবিন্দপুরের কৃষক হাওলাদার মারুফ হোসেন জানান, বড় ধরনের কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে আশানুরূপ ফলন পাবেন বলে তিনি আশা করেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২৪
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫১
আসর৪:১২
মাগরিব৫:৫৬
এশা৭:০৯
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৬৭০.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.