নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ৯ ফাল্গুন ১৪২৪, ৪ জমাদিউস সানি ১৪৩৯
বীরগঞ্জে ১ কোটি ১৬ লাখ টাকা আত্মসাৎ অভিযোগ করা হলেও অজ্ঞাত কারণে ১৭ লাখ টাকার চূড়ান্ত প্রতিবেদন
বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকে সিদ্দিক হোসেন
বীরগঞ্জ উপজেলা শিক্ষক কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপক মো. রেজাউর করিম ও সাবেক সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি মো. জাবেদ আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. গোলাম মোস্তফা, ডিরেক্টর মো. শামসুল আলম ও টংক নাথ রায় বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে ১ কোটি ১২ লাখ টাকা আত্মসাৎ করলে দিনাজপুর জজ কোর্টে গত ০৫/০১/২০১৮ইং তারিখে মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং-১১৮ এবং জেলা সমবায় কার্যালয়ে অভিযোগ করলে অভিযোগের প্রেক্ষিতে জেলা সমব্যয় অফিসার কর্তৃক কয়েক দফায় তদন্ত শেষে গত ১১-০২-২০১৮ ইং তারিখে চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেন যার স্মারক নং- ৪৭.৬১.২৭০০.০০০.২৭.০০৮.১৭, তারিখ ১১-০২-২০১৮ ইং। তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন যে, গত ১৭/০৮/২০১৭ ইং তারিখে গণস্বাক্ষরকৃত অভিযোগ পত্রে বিগত তিন অর্থবছরের অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ থাকলেও এবং মোট ১১টি খাত থাকার পরেও তদন্ত কর্মকর্তা অজ্ঞাত কারণে একটি অর্থ বছরের হিসেব ধরে এবং ১১টি খাতের মধ্যে মাত্র ৪টি খাত চিহ্নিত করে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ১৬ লাখ ৭৫ হাজার ৬শ ৯৮ টাকা ১৬ পয়সা। অর্থ আত্মসাত করেছেন মর্মে তদন্ত রিপোর্টে উল্লেখ করেছেন। অভিযোগে প্রধান দুর্নীতির খাত ছিল ১৪ জন ভুয়া শিক্ষক সাজিয়ে তাদের নামের বিপরিতে মোট ৬০ লক্ষ টাকা ভুয়া ঋণ উত্তোলন করে আত্মসাত করা। প্রথম অভিযোগটি ১০০% প্রমাণ হলেও তাদের দুর্নীতির কথা সাধারণ সদস্যরা জানতে পারলেও চাপে পড়ে নিরুপায় হয়ে কিছু টাকা পরিশোধ দেখায় কিন্তু অভিযোগ প্রমানীত হয় যে, খড়িকাদাম উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সন্তানের বস্নাড ক্যান্সারের সাহায্য হিসাবে ৪১ হাজার টাকা রেজুলেশনে পাশ করলেও তাকে দেওয়া হয় মাত্র ১০ হাজার টাকা। নিরদ নামে শিক্ষকের বাড়ী পুড়ে যাওয়ার সাহায্য হিসাবে ২৭ হাজার টাকা অনুমোদন করলেও তাকে দেয়া হয়েছে ১২ হাজার টাকা। এছাড়াও বিগত অর্থ বছর ২০১৬-২০১৭ পর্যালোচনা করে দেখা যায় তারা ১ বছরে ১২টি শিক্ষা সফর দেখিয়ে ৮ লক্ষ ৩৬ হাজার টাকা আত্মসাত করেন। প্রতিটি ঈদ বোনাসে ৭০ হাজার টাকা। প্রতি মাসে ১টি মিটিংয়ের নিয়ম থাকলেও একাধিক মিটিং দেখিয়ে ৬০ হাজার ২শত টাকা উত্তোলন করে আত্মসাত করেছে বলে জেলা সমবায় অফিস তদন্ত কমিটিতে উল্লেখ করেছেন।

এ ব্যাপারে জেলা ও উপজেলা সমবায় কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, দুর্নীতি ব্যক্তিরা যথাসময়ে আত্মসাতকৃত অর্থ বীরগঞ্জ উপজেলা শিক্ষক কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডকে জমা না দিলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সমবায় আইনে ২০১৪ বিধিতে উল্লেখ রয়েছে কোন ব্যক্তি অর্থ আত্মসাত করলে দিগুণ হারে ফেরত দিত হবে। ফেরত না দিলে ৭ বছরের কারাদন্ড হবে। এ ব্যাপারে বীরগঞ্জ উপজেলা শিক্ষক কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডের সদস্যরা পূর্বের কমিটির অভিযুক্ত সাধনের বিরুদ্ধে রংপুর ডিবি অফিসেও অভিযোগ করেছেন।

বীরগঞ্জে ১ কোটি ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করা হলেও অজ্ঞাত কারণে প্রায় ১৭ লাখ টাকার চুড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করায় বীরগঞ্জ উপজেলা শিক্ষক কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডের সদস্যদের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া'র সৃষ্টি হয়েছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২৪
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫১
আসর৪:১২
মাগরিব৫:৫৬
এশা৭:০৯
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬০৭৩.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.