নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ৬ ফাল্গুন ১৪২৩, ২০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮
ঢাকা-দিল্লী সরাসরি ফ্লাইট
বাংলাদেশ বিমান ও এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইট চালু হচ্ছে
স্টাফ রিপোর্টার
ঢাকা-দিল্লী রুটে কয়েক বছর এয়ার ইন্ডিয়ার মনোপলি ব্যবসার পর এবার যুক্ত হলো বাংলাদেশ বিমান। সপ্তাহে চারদিন ঢাকা থেকে দিল্লী যাবে বাংলাদেশ বিমান, আবার এয়ার ইন্ডিয়া দিল্লী থেকেও ঢাকা আসবে সপ্তাহে চারদিন। ধীরে ধীরে এই পরিসেবার ফ্রিকোয়েন্সি বাড়িয়ে দ্বিগুণ করা হবে বলে জানা গেছে।

ভারত-বাংলাদেশের দুই রাজধানীর মধ্যে যাদের নিয়মিত যাতায়াত আছে, তাদের আরও একটা সুখবর দিয়ে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী রাশেদ খান মেননও এদিন জানিয়েছেন, চলতি বছরের গ্রীষ্ম মৌসুম থেকে ঢাকা-দিল্লী রুটে বাংলাদেশ বিমানও সরাসরি ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে।

রাশেদ খান মেনন বলেন, দিল্লীতে ডাইরেক্ট ফ্লাইট চালু করার জন্য বিমানের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যেই ভারতের সিভিল এভিয়েশন ডিপার্টমেন্টকে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আমরা আশা করছি, চলতি বছরের সামার শিডিউলেই (গ্রীষ্মকালীন সময়সূচি) বিমান দিল্লী সার্ভিসকে অন্তর্ভুক্ত করতে পারবে। ফলে এই রুটে যদি জেট এয়ারওয়েজ, এয়ার ইন্ডিয়া এঙ্প্রেস ও বিমান বাংলাদেশ-এর মতো তিনটি এয়ারলাইন্স ডাইরেক্ট সার্ভিস চালু করে, তাহলে প্রতিযোগিতার স্বাভাবিক নিয়মেই যাত্রীভাড়া অনেক কমতে বাধ্য।

আসলে ভারত ও বাংলাদেশের কূটনৈতিক সুসম্পর্ক যখন ঐতিহাসিকভাবেই সেরা সুসময়ে'র মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তখন দুই দেশের দুই জাতীয় পতাকাবাহী এয়ারলাইন ('ফ্ল্যাগ ক্যারিয়ার') বিমান বাংলাদেশ ও এয়ার ইন্ডিয়া কারও দুই রাজধানীর মধ্যে সরাসরি কোনো ফ্লাইট পরিসেবা নেই, এই তথ্যটা বেশ অবাক করার মতোই। অথচ এক সময় এই দুই সংস্থাই ঢাকা-দিল্লীর মধ্যে সরাসরি বিমান চালাত, যদিও বেশ কয়েক বছর আগে তা বন্ধ হয়ে গেছে। এয়ার ইন্ডিয়া এঙ্প্রেসে দিল্লী-ঢাকা রুটে রিটার্ন ফ্লাইটের ভাড়াও অনেক কম। বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে পরীক্ষা করে দেখা যাচ্ছে, একটু আগেভাগে টিকিট কিনলে বারো-তেরো হাজার রুপিতেও এই ফ্লাইটে দিল্লী থেকে ঢাকা ঘুরে আসা সম্ভব।

গত তিন-চার বছর ধরেই এই পরিস্থিতির পুরো ফায়দা লুটে আসছে ভারতের বেসরকারি জেট এয়ারওয়েজ। দিল্লী থেকে ঢাকায় যাওয়ার জন্য যাদের সময়ের তাড়া থাকত, কিংবা যারা অসুস্থ রোগীকে দেখানোর জন্য ভারতের রাজধানীতে আসতেন, তাদের কাছে ডাইরেক্ট সার্ভিস বলতে একমাত্র অপশন ছিল জেট এয়ারওয়েজ। ফলে জেট অনেকগুণ বেশি ভাড়া হাঁকা সত্ত্বেও এতদিন তারা মাথাপিছু প্রায় চলি্লশ হাজার রুপি খরচ করে, সেই বিমানেই চাপতে বাধ্য হতেন। অথবা কম খরচে যেতে চাইলে তাদের যেতে হতো কলকাতা ঘুরে। ফলে বিশেষ করে অসুস্থ রোগী বা সরকারি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ীদের দিল্লী থেকে ঢাকা যেতে হলে জেট ছাড়া কোনো উপায় ছিল না। কিন্তু যাত্রীদের বিপুল চাহিদা থাকা সত্ত্বেও বিমান বা এয়ার ইন্ডিয়া তাদের ঢাকা-দিল্লী ডাইরেক্ট সার্ভিস বন্ধ করেছিল কেন। দিল্লীর রাজীব গান্ধী ভবনে (সিভিল এভিয়েশন বিভাগের সদর দফতর) কান পাতলে এ প্রশ্নের যে জবাব পাওয়া যায়, সেটাও খুব কৌতূহলোদ্দীপক। জেট যখন দিল্লী-ঢাকা সার্ভিস চালু করে, তখন নাকি প্রতিদ্বন্দ্বীদের হটাতে তারা টাকা খরচ করেছিল জলের মতো। তার কিছুদিন পরেই বন্ধ হয়ে যায় বিমানের ঢাকা-দিল্লী পরিষেবা।

এয়ার ইন্ডিয়ার সার্ভিস বন্ধ হওয়ার পেছনেও অনেকটা একই রকম কারণের কথা শোনা যায়। সরকারিভাবে এয়ার ইন্ডিয়া অবশ্য শিডিউলের সমস্যা, এয়ারক্র্যাফটের অভাব ইত্যাদি নানা যুক্তি দিয়ে থাকে। কিন্তু ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে সেই ছবিটা পাল্টাতে যাচ্ছে পাকাপাকিভাবে।

এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইট নম্বর নাইন জিরো ওয়ান টু যখন ঢাকার স্থানীয় সময় বিকেল চারটায় হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরের রানওয়েতে নামল, তখন থেকেই আসলে ঢাকা-দিল্লীর মধ্যে দূরত্বটা আবার এক লাফে কমে গেল অনেকটা। সামনে গরমের মাসগুলোতে একই রুটে বিমানের পরিসেবা চালু হলে দুই রাজধানী চলে আসবে আরও কাছাকাছি, পকেটের আরও নাগালে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীআগষ্ট - ১৭
ফজর৪:১৫
যোহর১২:০৩
আসর৪:৩৮
মাগরিব৬:৩৪
এশা৭:৫০
সূর্যোদয় - ৫:৩৪সূর্যাস্ত - ০৬:২৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৫৭১.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.