নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
নির্মিত হচ্ছে একের পর এক দালান : সংশ্লিষ্টরা নীরব
পটিয়ায় ৫ কিমি. এলাকা জুড়ে রেলওয়ে ও সড়ক জনপথের ভূমি অবৈধ দখলে
পটিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে সেলিম চৌধুরী
পটিয়ার খানমোহনা ও শ্রীমাই ব্রিজ থেকে শুরু করে কমল মুন্সির হাট পর্যন্ত ৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বাংলাদেশ রেলওয়ে এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা বেআইনীভাবে অবৈধ দখল পূর্বক গৃহ নির্মাণ করছে ভূমিদস্যুরা। চট্টগ্রাম কঙ্বাজার-মহাসড়ক ও রেল লাইনের মাঝখানে ৩০ গজ খালি জায়গায় শ্রীমাই এলাকায় অর্ধ শতাধিক পাকা দালান নির্মাণ করা হলেও সংশ্লিষ্টরা নীরব ভূমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, এক পাশে রেলওয়ে সড়ক অন্য পাশে মহাসড়ক। মাঝখানে ৩০/৪০ গজ খালি পরিত্যক্ত খাস জমি ছিল দীর্ঘদিন। স্বাধীনতার পর থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এ খালি জায়গায় বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ সরকারের কাছ থেকে লিজ নিয়ে বিভিন্ন চাষাবাদ করে এসেছে। বর্তমানে শ্রীমাই রেলওয়ে ব্রিজ থেকে শুরু করে কমল মুন্সির হাট পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার খালি জায়গায় একের পর এক বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ চলছে। কিন্তু সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নীরব ভূমিকা পালন করায় এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। একাধিক ভবনের মালিকের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলেও তারা এর সদুত্তর দিতে পারেনি। বরং তারা দাবি করছে এ খালি জায়গাগুলো বিভিন্ন মালিকের খতিয়ানভুক্ত জায়গা। অথচ সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং রেলওয়ের সুনির্দিষ্ট আইনে ৩০/৪০ গজের মধ্যে পাকা দালান নির্মাণ করার নিয়ম না থাকলেও অবৈধ দখলে মেতে উঠেছে ভূমিদস্যুরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকার লোকজন জানান, সরকারের এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তাদের মোটা উৎকোচের মাধ্যমে ম্যানেজ করে এসব ভবন তৈরি করা হচ্ছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। তাছাড়া সরকারি এ জায়গায় বিভিন্ন মানুষের নামে বেনামে খতিয়ান সৃজন করে বেচা-বিক্রিও করছে অনেকে। এতে করে সরকারের শত শত কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি অবৈধ দখলদারের হাতে চলে যাচ্ছে। বিষয়টি রেলমন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রীসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছে স্থানীয়রা।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১১
ফজর৫:১০
যোহর১১:৫২
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:৩০সূর্যাস্ত - ০৫:১১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৬৪১.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.