নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
আমতলীতে বোরো চাষ
১ বছরে ৩০ ভাগ বৃদ্ধি
আমতলী প্রতিনিধি
বরগুনার আমতলীতে বোরো চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা। গত বছরের তুলনায় এ বছর বোরো চাষ ৩০ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। ভালো ফলনের আশা করছেন কৃষকরা। উপজেলা কৃষি বিভাগ বোরো আবাদে কৃষকদের উৎসাহিত করে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে নিরলস চেষ্টা করছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত বছর আমতলীতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়ছিল ১৩০ হেক্টর। এ বছর ঐ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ৪ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষের আশাবাদ করছে কৃষিবিভাগ।

গত বছরের তুলনায় এ বছর ৩০ ভাগ বোরো চাষ বৃদ্ধি পেয়েছে। বোরো ধান চাষের উপযুক্ত সময় মধ্য কার্তিক থেকে শুরু করে ফাল্গুন মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত। উচ্চ ফলনশীল জাতের বিরি-২৮, বিরি-২৯, বিরি-৪৭ ও বিরি-৫৮ ধান চাষ করছেন কৃষকরা।

বীজতলা থেকে শুরু করে পাঁচ মাসের মধ্যে উচ্চ ফলনশীল বোরো ধানের ফলন আসে। আমতলীর কৃষকরা এখন বোরো চাষে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। গত শুক্রবার সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার গুলিশাখালী, আঠারোগাছিয়া, কুকুয়া, হলদিয়া, চাওড়া, আমতলী সদর ও আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে কৃষকরা বোরো চাষ করছেন। কৃষকরা জমি চাষ, সেচ, বোরো ধানের চারা উত্তোলন ও বপন কাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। পূর্ব চিলা গ্রামের কৃষক জলিল হাওলাদার, মজিবর, রিপন, নাঈম ও রুবেল হাওলাদার জানান, গত বছরের তুলনায় এ বছর কৃষকরা বেশি বোরো চাষ করছে। আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাখালী গ্রামের সোহেল রানা জানান, গত বছর ভালো ফলন হওয়ায় এ বছর চার একর জমিতে বোরো চাষ করেছি।

চিলা গ্রামের জাফর হাওলাদার জানান, তিন একর জমিতে ১২ হাজার টাকায় বোরো চারা উত্তোলন ও রোপণের জন্য চুক্তিতে দিয়েছি। ঘোপখালী গ্রামের আফজাল শরীফ জানান, গত বছর এক একর জমিতে বোরো চাষ করেছিলাম ফলন ভালো হওয়ায় এ বছর ৫ একর জমিতে বোরো চাষ করেছি।

আমতলী উপজেলা কৃষি অফিসার এসএম বদরুল আলম বলেন, গত বছরের তুলনায় এ বছর বোরো চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা। গত বছর বোরো অর্জিত হয়েছিল ১৩০ হেক্টর। এ বছর গত বছরের লক্ষ্যমাত্রা কয়েকগুণ ছাড়িয়ে ৪ হাজার হেক্টর জমিতে আবাদ হবে বলে আশা করছি। তিনি আরও বলেন, সরকার দক্ষিণাঞ্চলে বোরো ধান চাষে অগ্রাধিকার দেয়ায় উপজেলা কৃষি বিভাগ সরকারি লক্ষ্য অর্জনে নিরলস চেষ্টা করছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীএপ্রিল - ১১
ফজর৪:২৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২১
এশা৭:৩৬
সূর্যোদয় - ৫:৪০সূর্যাস্ত - ০৬:১৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২১৯৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.