নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬, ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১
নাটোরের গুরুদাসপুরে মনোয়ারার খুনি বন্দুকযুদ্ধে নিহত
নাটোর প্রতিনিধি
নাটোরের গুরুদাসপুরের বৃদ্ধা মনোয়ারা বেগম হত্যা মামলার ভাড়াটে খুনি হানিফ শেখ পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে। এ সময় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল,একটি পাইপগান ও ৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। আহত দুই পুলিশ সদস্য

হলেন, সহকারী উপ-পরিদর্শক আবুল কালাম ও রুবেল হোসেন। নিহত হানিফ শেখ উপজেলার কালাকান্দার গ্রামের রুহুল শেখের ছেলে। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার পার গুরুদাসপুরের একটি কলা বাগানে এ ঘটনা ঘটে।

নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, গত ১৬ জানুয়ারি নাটোরের গুরুদাসপুরের পার গুরুদাসপুর গ্রামের অব. প্রাথমিক শিক্ষক হাতেম আলীর স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় অজ্ঞাতদের আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরের পর তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় ওই মামলার আসামিদেরকে সনাক্ত করা হয়। সিংড়া সার্কেল এএসপি জামিল আকতারের নেতৃত্বে গুরুদাসপুর থানা পুলিশের একটি টিম গত ২৩ জানুয়ারি রাতে রাজধানী ঢাকার মেরুল বাড্ডা এলাকা হতে ওই হত্যা মামলার ভাড়াটে খুনি আবু হানিফ শেখকে গ্রেফতার করে। তার দেয়া তথ্যমতে রাজধানীর বনশ্রী এবং সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার কল্যাণপুর নামক স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যমতে গত বৃহস্পতিবার রাতে পার গুরুদাসপুর এলাকায় উক্ত হত্যা মামলার সহযোগীদের গ্রেফতার করার জন্য অভিযান পরিচালনা করা হয়। এই সময় পার গুরুদাসপুর হতে কালাকান্দার সংযোগ সড়কের পাশ্র্বে অবস্থিত কলাবাগানে অবস্থানরত পলাতক আসামিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। পুলিশের সাথে তাদের বন্দুকযুদ্ধ চলাকালে গ্রেফতারকৃত হানিফ শেখ পলানোর চেষ্টাকালে গুলিবিদ্ধ হয়। এসময় অন্যরা সবাই পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল ও একটি দেশীয় পাইপগান এবং ৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় দুইজন পুলিশ আহত হয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহত আসামি বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ৪
ফজর৫:০৬
যোহর১১:৪৯
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:২৬সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৯২৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.